অন্যান্য

ঢাকায় ফের অনৈতিক শারীরিক সম্পর্কের পর বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীর ‘মৃত্যু’

2021/02/01/_post_thumb-2021_02_01_05_28_07.jpg

ঢাকার মোহাম্মদপুরে বন্ধুর বাড়ি থেকে অসুস্থ অবস্থায় এক তরুণীকে হাসপাতালে নেওয়ার পর তার মৃত্যু ঘটেছে।

ওই তরুণীর বাবা মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগ তুলে তার মেয়ের ছেলেবন্ধুর বিরুদ্ধে মোহাম্মদপুর থানায় মামলা করেছেন। রোববার সকাল ১১টার দিকে আনোয়ার খান মডার্ন হাসপাতালে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ওই তরুণীর মৃত্যু হয়।

এ মাসের শুরুতে এই হাসপাতালেই নেওয়ার পর মাস্টারমাইন্ড স্কুলের ও লেভেলের এক ছাত্রীকে মৃত ঘোষণা করা হয়েছিল। কলাবাগানে বন্ধুর বাড়িতে অসুস্থ হয়ে পড়েছিল ওই তরুণী।

ওই তরুণীর বন্ধু দাবি করেছিলেন, ‘পরস্পরের সম্মতিতে’ তারা দৈহিক সম্পর্কে গিয়েছিলেন, তখন রক্তক্ষরণ শুরু হয় ওই তরুণীর।

তবে মেয়েটির বাবা ধর্ষণ ও হত্যার মামলা করার পর ইফতেখার দিহান নামে ওই তরুণকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। মোহাম্মদপুরের ঘটনাটিও তেমনই বলে পুলিশ জানিয়েছে।

মোহাম্মদপুর থানার ওসি মো. আব্দুল লতিফ বলেন, গত শুক্রবার উত্তরার একটি রেস্তোরাঁয় ওই তরুণী ও তার বন্ধু রায়হান খাওয়া-দাওয়ার পর মোহাম্মদপুরের মোহাম্মদীয়া হোমস নামে আবাসিক এলাকায় তাদের বন্ধুর তাফসিরের বাসায় যায়। ওই দিনই সেখান থেকে অসুস্থ অবস্থায় ওই তরুণীকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল।

ওসি বলেন, “দুজনে মদপান করে ওই বাসায় যাওয়ার পর ওই তরুণীর সঙ্গে তার বন্ধুর শারীরিক সম্পর্ক হয়েছিল বলে প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা গেছে।”

এদিকে শনিবার ওই তরুণীর বাবা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মোহাম্মদপুর থানায় মামলা করেন।

এরপর পুলিশ ওই তরুণীর বন্ধু রায়হান এবং তাদের অন্য দুই বন্ধু কোকো ও তাফসীরকে গ্রেপ্তার করে বলে জানান ওসি।

তিনি বলেন, “আদালতে পাঠিয়ে তাদের তিন দিনের রিমান্ডে আনা হয়েছে। প্রকৃত ঘটনা কী ঘটেছে, রিমান্ডে আনা তিনজনের কাছ থেকে তা জানার চেষ্টা করা হচ্ছে।”

ওই তরুণী ও তার বন্ধুরা সবাই ইউ ল্যাব বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী বলে জানান ওসি।

মন্তব্য