প্রচ্ছদ

‘লকডাউন ভুয়া’ বলা সেই পথশিশু সরকারি আশ্রয়কেন্দ্রে

2021/04/25/_post_thumb-2021_04_25_15_04_49.jpg

পুরান ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালত এলাকা থেকে সময় টিভির লাইভে ‘ভুয়া লকডাউন’ বলায় পথশিশু মারুফকে সমাজসেবা অধিদপ্তরের আশ্রয়কেন্দ্রে পাঠিয়েছে পুলিশ।

কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-তদন্ত) মাহবুবুর রহমান এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, আজ (শনিবার) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে জজকোর্ট এলাকার বাংলাদেশ ব্যাংক ভবনের সামনে থেকে মারুফকে ধরে নিয়ে যায় কোতোয়ালি থানা-পুলিশ। এরপর আইনি প্রক্রিয়া শেষে তাকে সমাজসেবা অধিদপ্তরের মিরপুরের আশ্রয়কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে।

ফেসবুকে ভাইরাল পথশিশু মারুফকে বৃহস্পতিবার থেকে বাহাদুর শাহ পার্ক এলাকায় দেখা যাচ্ছিল না। শিশুটির অবস্থান সম্পর্কে তার সঙ্গী পথশিশুরাও কিছু বলতে পারেনি।

তবে শিশুটির নিয়মিত খোঁজখবর রাখছিলেন সহমর্মিতা ফাউন্ডেশন উদ্যোক্তা পারভেজ হাসান। শনিবার ভোরে ফেসবুকে এক পোস্টে পারভেজ জানান, মারুফের খোঁজ মিলেছে বাহাদুর শাহ পার্কেই। দিনের বেলায় তাকে দেখা না গেলেও রাতে সে পার্কে ফিরে এসেছে।

ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালত এলাকা থেকে গত সোমবার দুপুরে ফেসবুকে লাইভ করেন সময়ের কণ্ঠস্বর নামের একটি অনলাইন সংবাদমাধ্যমের প্রধান প্রতিবেদক পলাশ মল্লিক।

তার কথা বলা প্রায় শেষের দিকে ক্যামেরার ফ্রেমে ঢুকে পড়ে পথশিশু মারুফ। সে বলে ওঠে, ‘এই যে লকডাউন দিছে, মানুষ খাবে কী? সামনে ঈদ। এই যে মাননীয় মন্ত্রী একটা লকডাউন দিছে, এটা ভুয়া। থ্যাঙ্কু।’

পরদিন মারুফের চোখে জখমসহ একটি ছবি ছড়িয়ে পড়ে ফেসবুকে। ওই ছবি শেয়ার করে অসংখ্য ফেসবুক ব্যবহারকারী অভিযোগ তোলেন, লকডাউন নিয়ে সরকারি অবস্থানের বিরোধিতা করার কারণেই তাকে পুলিশ বা ছাত্রলীগ কর্মীরা মারধর করেছে।




মন্তব্য