প্রচ্ছদ

বাসা থেকে কলেজছাত্রকে তুলে নিয়ে গেল র‌্যাব, মামলা নিচ্ছেনা পুলিশ

2022/04/13/_post_thumb-2022_04_13_00_29_41.png

রাজশাহীতে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) পরিচয়ে মিজানুর রহমান নামে এক কলেজছাত্রকে তুলে নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যার কিছু আগে রাজশাহী নগরীর একটি রেস্টুরেন্টে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেছেন নিখোঁজ কলেজছাত্রের মা-বাবা।

মিজানুরের বাড়ি নগরীর মতিহার থানার খোজাঁপুর গ্রামে। তিনি রাজশাহী নিউ গভর্নমেন্ট ডিগ্রি কলেজের মাস্টার্সের ছাত্র।

এ সময় লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন নিখোঁজ মিজানুরের বড় ভাই নবাব শরীফ। উপস্থিত ছিলেন মিজানুরের মা আছিয়া বেওয়া ও বাবা আজিম উদ্দিন।

লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, ৯ এপ্রিল ইফতারের আগ মুহূর্তে নগরীর মতিহার থানাধীন মন্ডলের মোড় এলাকার একটি গলি থেকে র‌্যাব পরিচয়ে মিজানুর রহমানকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়। এরপর পরিবারের পক্ষ থেকে র‌্যাব কার্যালয়ে গেলে মিজানুরের সাথে সাক্ষাৎ করেন তারা। এ সময় র‌্যাবের পক্ষ থেকে তাদের জানানো হয়, তাকে পরদিন আদালতে নেয়া হবে। কিন্তু তাকে আদালতে তোলা হয়নি।

পরে পরিবারের সদস্যরা আবারো র‌্যাব কার্যালয়ে যোগাযোগ করলে বলা হয় আদালতে নেয়া হয়েছে। কিন্তু তাকে কোথাও পাওয়া যায়নি।

এরপর মঙ্গলবার পরিবারের সদস্যরা র‌্যাবের সাথে যোগাযোগ করলে বলা হয়, মিজানুর কোথায় আছেন তারা তা জানেন না। এ ঘটনায় গত সোমবার রাতে পরিবারের পক্ষ থেকে মতিহার থানায় সাধারণ ডায়রি করতে গেলে তা গ্রহণ করা হয়নি।

এতে খুবই উদ্বিগ্ন ও শঙ্কিত হয়ে পড়েছেন নিখোঁজ মিজানুরের বৃদ্ধ মা-বাবা। তারা ছেলের খোঁজ না পেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। ছেলের বিরুদ্ধে কী অভিযোগ তাও জানেন না তারা।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, মিজানুরের বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ থাকলে তাকে আদালতে তোলা হোক। এ অবস্থায় পরিবারের সদস্যরা প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেছেন, মিজানুর কোনো অপরাধ করে থাকলে আইনি প্রক্রিয়ায় তার বিচার করা হোক। মা-বাবার কাছে ছেলেকে ফিরিয়ে দেয়ার আকুতি জানান তারা।

জানতে চাইলে র‌্যাবের মিডিয়া সেল থেকে নয়া দিগন্তকে বলা হয়, এ ব্যাপারে কোনো তথ্য জানা নেই।

নগরীর মতিহার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আনোয়ার আলী তুহিনের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তিনি কল রিসিভ করেননি।


মন্তব্য