জাতীয়

কথিত লকডাউনে শুধু মার্কেট ও দোকান মালিকদের ক্ষতি ২৭ লাখ কোটি টাকা

2021/08/01/_post_thumb-2021_08_01_17_02_15.jpg

জীবন-জীবিকা বাঁচাতে আগামী ৬ আগস্ট থেকে ক্ষুদ্র ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, মার্কেট ও দোকান খুলে দেওয়ার দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতি।

ঢাকা নিউমার্কেট দোকান মালিক সমিতির কার্যালয়ে আজ রোববার দুপুরে সংবাদ সম্মেলনে ক্ষুদ্র ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান ও দোকান লকডাউনের আওতায় না রাখার দাবি জানায় তারা।

সমিতির সভাপতি হেলাল উদ্দিন বলেন, 'ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের অবস্থা খুব খারাপ। দোকান বন্ধ। তাদের আয়ও বন্ধ। তাদের জীবন এখন থমকে গেছে। তাই সরকারের প্রতি আমরা এসব খুলে দেওয়ার অনুরোধ জানাই।'

তিনি বলেন, '২০২০ সালে করোনা সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর থেকে এ পর্যন্ত মোট ২৭০ দিন দোকানপাট বন্ধ ছিল। আর সব মিলিয়ে গত দেড় বছরে ব্যবসায়ীদের ক্ষতি হয়েছে প্রায় ২৭ লাখ কোটি টাকা।'

সংগঠনটি বলছে, তাদের হিসাবে দেশে পাইকারি ও খুচরা বিক্রেতা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা প্রায় ৫৬ লাখ। আর এসব প্রতিষ্ঠানে দুই কোটিরও বেশি কর্মী কাজ করেন।

সংবাদ সম্মেলনে ৫ আগস্টের পর দোকান খোলাসহ চার দফা দাবি পেশ করে দোকান মালিক সমিতি।

এরমধ্যে আছে, দেশজুড়ে টিকা প্রদানের ব্যবস্থা করা, মাস্ক পরিধান নিশ্চিত করতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী নিয়োগ ও ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের নগদ প্রণোদনা দেওয়া।

করোনা সংক্রমণ রোধে ১ জুলাই থেকে দুই সপ্তাহের জন্য ঢাকাসহ সারাদেশে কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়। মাঝে ঈদুল আযহার সময় সাত দিন বাদ দিয়ে আবার ২৩ জুলাই থেকে ৫ আগস্ট পর্যন্ত কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করে সরকার। তবে, ১ আগস্ট থেকে কারখানা খুলে দেওয়া হয়েছে।

মন্তব্য