খেলাধুলা

আফগানিস্তানের বিপক্ষে হার হবে ভারতের জন্য ‘চূড়ান্ত বিপর্যয়’

2021/11/03/_post_thumb-2021_11_03_15_44_52.jpg

আজ বুধবার বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায় ভারত ও আফগানিস্তান মুখোমুখি হতে যাচ্ছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভ পর্বের ম্যাচে।

দুই দলের জন্যই ম্যাচটা জেতা গুরুত্বপূর্ণ। ভারত জিতলে সেটা হবে ভারতের সেমিফাইনালে ওঠার লড়াইয়ের শুরু।

আর আফগানিস্তান জিতে গেলে রশিদ খানদের সেমিফাইনালে ওঠা অনেকটাই সময়ের ব্যাপার হয়ে দাঁড়াবে। কাল বাদে পরশু ভারতে দিওয়ালি, ভারতের সবচেয়ে বড় উৎসবগুলোর একটি।

ক্রিকেট কোচ ও ইংল্যান্ডের সাবেক ক্রিকেটার ইয়ান পন্ট মনে করছেন, ‘বিরাট কোহলি ও রবি শাস্ত্রীর জন্য বড় ম্যাচ। আফগানিস্তানের সাথে হার হবে ভারতের জন্য চূড়ান্ত বিপর্যয়।’

নিজের টুইটার পাতায় বাংলাদেশের সাবেক বোলিং কোচ পন্ট লিখেছেন, ‘এখন সম্মানের জন্য খেলছে ভারত। ভক্তদের খুশি করতে দিওয়ালির আগে একটা জয় দরকার।’

ভারতে ক্রিকেটভক্তরা মুখিয়ে আছে এখন একটা ম্যাচ জয়ের জন্য। টুইটার পাতা, ফেসবুক সবখানে ভারতের ক্রিকেট দল নিয়ে ঠাট্টা-মশকরা চলছে, চলছে আহাজারি।

একটা কঠিন সময়ের মুখোমুখি বিরাট কোহলি এবং তার দল। বিরাট কোহলির ম্যাচ-পূর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলনে একটা জয়ের জন্য তীব্র বাসনার কথাই শোনা গেছে।

ভারত তাদের প্রথম দুই ম্যাচ হারবে, টুর্নামেন্টের সেমিফাইনালে ওঠার জন্য কঠিন সমীকরণের মুখোমুখি হবে এটা অনেকেই ভাবেননি।

কিন্তু এখন কোহলি বলছেন, ‘আমি যেকোনো জায়গা থেকে একটা ক্রিকেট ম্যাচ জয়ের উপায় বের করতে চাই।’

ভারতের সামনে এখন অনেক প্রশ্ন, তবে প্রথম প্রশ্নটাই আফগানিস্তান ক্রিকেট দল। আফগানিস্তানের সাথে হার বিশ্বের অন্যতম এই ক্রিকেট শক্তির জন্য একটা ধাক্কাই হবে না, এটা তাদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে দেবে।

আফগানিস্তানের ক্রিকেটাররা পুরোপুরি সময়টা উপভোগ করতে চাইছেন। গুলবাদিন নাইব বলেছেন, ‘আফগানিস্তানে মাস দুয়েক আগেও যে অবস্থা ছিল তা থেকে এখন আমরা বেরিয়ে আসতে চাচ্ছি।’

‘আমরা এখানে উপভোগ করছি। ভারত বড় দল। কিন্তু এটা টি-টোয়েন্টি ম্যাচ, যেকোনো কিছু হতে পারে।’

নাইব বলেছেন, প্রতিটি মুহূর্ত প্রতিটি ম্যাচ সর্বোচ্চ প্রয়াস দিয়ে খেলা এবং উপভোগ করাই আফগানিস্তানের লক্ষ্য।

ভারতের সাবেক ক্রিকেটার এবং ধারাভাষ্যকার মুরলি কার্তিক বলছেন, ভারত হেরেছে এটা ব্যাপার না। কিন্তু যে কায়দায় হেরেছে সেটা দৃষ্টিকটু।

তবে তিনি বলেছেন, ‘খেলাধুলা মানেই আশা। ভারতের এই দলটির সেই কোয়ালিটি আছে। আমি জানি না ভারত কেন পারছে না। কিন্তু আশা রাখতেই হবে।’

আফগানিস্তান ইতোমধ্যে তিন ম্যাচ খেলেছে যেখানে স্কটল্যান্ড ও নামিবিয়ার সাথে জয় পেয়েছে, স্কটল্যান্ডের সাথে রীতিমতো ১৩০ রানের বড় জয় পেয়েছে। যার ফলে তাদের নেট রান রেট এখন ৩.০৯৭।

এই টুর্নামেন্টে আফগানিস্তানের মতো নেট রান রেট আছে শুধুই ইংল্যান্ডের। যারা এখনো কোনো ম্যাচ হারেনি।

এমন একটা অবস্থায় ভারতের নড়বড়ে একটা দল রশিদ খান, মুজিব উর রহমানদের মুখোমুখি হচ্ছে।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ইশ সোধি ও মিচেল স্যান্টনার যেভাবে ভারতের ব্যাটসম্যানদের ভুগিয়েছে, তাতে রশিদ-মুজিব-নবীরা সে পরিস্থিতির জন্য মুখিয়ে থাকবেন তা নিশ্চিত।

আফগানিস্তানের এই ম্যাচে হারানোর কিছু নেই, আর ভারত এই ম্যাচ জিতেও আকর্ণবিস্তৃত হাসি হাসতে পারবে না।

কারণ এরপর আফগানিস্তানের দিকেই তাকিয়ে থাকতে হবে, যাতে তারা নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে দেয়। এই গ্রুপে পাকিস্তান আনুষ্ঠানিকভাবে সেমিফাইনালে খেলা নিশ্চিত করেছে ইতোমধ্যে। ভারত, আফগানিস্তান ও নিউজিল্যান্ড- এই তিনটি দল একটি জায়গা দখল করতে লড়ছে।


সূত্র : বিবিসি

মন্তব্য