জাতীয়

এবার বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ, ভ্রুণ হত্যা করলো একাত্তর টিভির সাংবাদিক শাকিল

2021/11/03/_post_thumb-2021_11_03_20_13_21.jpg

বেসরকারি টেলিভিশন একাত্তরের সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও অনৈতিকতার অভিযোগ নতুন কিছু নয়। বিভিন্ন সময় ইসলাম বিদ্বেষ, অনৈতিক কর্মকাণ্ড, সরকারের দালালিসহ বিভিন্ন কর্মকাণ্ডের কারণে তোপের মুখে পড়েছে কয়েকবার।

আবারও নতুন করে সমালোচনার জন্ম দিয়েছে একাত্তর টেলিভিশনের হেড অফ নিউজ শাকিল আহমেদ। বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ, ভ্রুণ হত্যার অভিযোগ উঠেছে তার বিরুদ্ধে।

জানা যায়, ডাক্তার তৃণা নামে এক নারী চাকরির জন্য সাংবাদিক শাকিল আহমেদের কাছে যায়। তারপর চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে ও তার গার্ল ফ্রেন্ড নাই এমনসব মিথ্যাচার করে ব্লাকমেইল করে ওই নারীর সাথে সম্পর্ক গড়ে তোলে শাকিল। এরপর সম্পর্ক গভীর হলে শারীরিক সম্পর্কও জড়ায় তারা। এক পর্যায়ে গর্ভবতী হয় তৃণা। কিন্তু তা মানতে না রাজি হননা শাকিল। বাচ্চা নষ্ট করার জন্য নিয়মিত তাকে হুমকি দিতে থাকেন ওই সাংবাদিক। এক পর্যায়ে অতিষ্ট হয়ে বিদেশে পাড়ি জমান তৃণা। এরপর বিয়ের আশ্বাস দিয়ে দেশে নিয়ে আসার পর ভ্রুণ নষ্ট করতে বাধ্য করেন।

তৃণা বলেন, ‘আমি প্রায় ২০ লাখ টাকা খরচ করে যুক্তরাজ্যে যাই। এরপর বিভিন্নভাবে ইমোশনাল ব্লাকমেইল করে বিয়ের আশ্বাস দিয়ে আমাকে দেশে নিয়ে এসে ভ্রুণ নষ্ট করতে বাধ্য করে।’

জানা যায়, শাকিল আহমেদ দেশের আলোচিত সমালোচিত সাংবাদিক ফারজানা রুপার স্বামী। শুধু তাই নয় নিজের বিবাহিত বউ থাকার পরেও একই টেলিভিশনের উপস্থাপিকা নাজনীন মুন্নীর সাথে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক গড়ে তোলে।

উল্লেখ্য, এরআগে একাত্তর টেলিভিশনের সাংবাদিক ফারজানা রুপা, নাজনীন মুন্নীসহ বিভিন্ন সাংবাদিকের ওপর অনৈতিকতার অভিযোগ ওঠে। এছাড়া সহকর্মীর শিশু পুত্রকে বলাৎকার চেষ্টা ও নিপীড়নের অভিযোগ ওঠে একাত্তর টিভির সিনিয়র সাংবাদিক হোসাইন সোহেলের বিরুদ্ধে।


মন্তব্য