অপরাধ

ছাত্রীর ফোনে অশ্লীল ছবি পাঠিয়ে এসআই কারাগারে

2022/11/16/_post_thumb-2022_11_16_17_20_20.jpg

বরিশালে তথ্য-প্রযুক্তি আইনে মেহেদি হাসান নামের এক উপ-পরিদর্শককে (এসআই) গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গত মঙ্গলবার রাতে নগরীর বাকলার মোড় থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এর আগে পর্যটকদের আটকে ঘুষ নেওয়ার অভিযোগে গত ২৬ সেপ্টেম্বর তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। এক ছাত্রীর মায়ের দায়ের করা মামলায় তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানায় পুলিশ।

মামলার এজাহারে ওই ছাত্রীর মা উল্লেখ করেন, চলতি মাসের ৮ তারিখে অভিযুক্ত এসআই ব্যক্তিগত মোবাইল নম্বর থেকে ফোন করে তার মেয়ের একটি একান্ত ছবি ও ভিডিও আছে বলে জানান। ওই দিন রাত সাড়ে ১১টার দিকে তার মেয়ের মোবাইলে কিছু ব্যক্তিগত ভিডিও পাঠান তিনি। এর পর থেকে ওই ছাত্রীর হোয়াটসঅ্যাপ নম্বরে বিভিন্ন সময়ে মেহেদি নিজের ব্যক্তিগত নগ্ন ভিডিও ও ছবি পাঠান।

এ ছাড়াও বিভিন্ন সময় ওই ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করতে থাকেন মেহেদি। তার প্রস্তাবে রাজি না হলে ভিডিও ও ছবি ছাত্রীর বন্ধু-বান্ধব ও আত্মীয়-স্বজনদের কাছে পাঠানোর হুমকি দেন এবং নগদ অর্থ দাবি করেন।

তার দাবি অনুযায়ী গত মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে মেহেদির ব্যবহৃত মুঠোফোন ০১৭২৯....৭৪ নম্বরে বিকাশের মাধ্যমে এক হাজার টাকা পাঠানো হয়। মেহেদি আরো টাকা দাবি করলে কোতোয়ালি মডেল থানার পুলিশের কাছ অভিযোগ দেয় ভুক্তভোগীর পরিবার।

বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার সাইফুল ইসলাম বলেন, ‘ওই ছাত্রীর পরিবার থেকে অভিযোগ পাওয়ার পর আমরা এসআই মেহেদি হাসানকে আটক করি। প্রথামিক তদন্তে অভিযোগের সত্যতা পাওয়া যায়। পরে অভিযোগটি এজাহার হিসেবে গণ্য করে আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানোর হয়।

মন্তব্য