ঢাকা ০৩:০৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সরকার পতনের চূড়ান্ত কর্মসূচি ঘোষণা করবে ছাত্র যুব সমাবেশ

২০ অক্টোবর ছাত্র-যুব মহাসমাবেশ : আসছে কঠোর কর্মসূচি

নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৩:৫৯:৫০ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৮ অক্টোবর ২০২৩
  • / ২২৪ বার পড়া হয়েছে

‘অথর্ব প্রধান নির্বাচন কমিশনারের পদত্যাগ ও ব্যর্থ নির্বাচন কমিশন বাতিল, সংখ্যানুপাতিক নির্বাচন (চজ) পদ্ধতির প্রবর্তন, বিদ্যমান রাজনৈতিক সংকট উত্তরণে সংসদ ভেঙে দিয়ে জাতীয় সরকারের অধীনে একটি সুষ্ঠু-নিরপেক্ষ জাতীয় নির্বাচনের দাবিতে ২০ অক্টোবর (শুক্রবার) বাদ জুম’আ ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ‘ছাত্র যুব সমাবেশ’ অনুষ্ঠিত হবে।

সরকার পতনের এক দফা আন্দোলনের কর্মসূচি ঘোষণা করবে ছাত্র যুব সমাজ থেকে।

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করীম (চরমোনাই পীর)। সমাবেশের উদ্বোধন করবেন ইসলামী ছাত্র আন্দোলন বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় সভাপতি শরিফুল ইসলাম রিয়াদ। সভাপতিত্ব করবেন ইসলামী যুব আন্দোলন বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় সভাপতি মাওলানা মুহাম্মাদ নেছার উদ্দিন। আয়োজনে থাকবেন ইসলামী যুব আন্দোলন ও ইসলামী ছাত্র আন্দোলন। ছাত্র-যুব সমাবেশ সফলে ইতোমধ্যে ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে ছাত্র ও যুব আন্দোলন। স্মরণকালের বৃহত্তর সমাবেশে রূপ নেবে ছাত্র-যুব সমাবেশ।

উল্লেখ্য যে, গত ৭ অক্টোবর ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের সমাবেশ থেকে দলের আমীর এ কর্মসূচি ঘোষণা করেন। ছাত্র-যুব সমাবেশ থেকে পরবর্তী কঠোর কর্মসূচি ঘোষণা করার কথা রয়েছে।

এদিকে মঙ্গলবার বিকেলে ইসলামী যুব আন্দোলন ও ইসলামী ছাত্র আন্দোলন-এর এক যৌথ সভায় যুব আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সভাপতি মাওলানা মুহাম্মদ নেছার উদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। এতে ছাত্র আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সভাপতি শরিফুল ইসলাম রিয়াদ, যুব আন্দোলনের সেক্রেটারি জেনারেল মুফতী মানসুর আহমদ সাকী, ছাত্র আন্দোলনের সেক্রেটারী জেনারেল মুহাম্মদ ইউসুফ মানসুরসহ উভয় সংগঠনের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

সভায় ছাত্র-যুব সমাবেশের সর্বশেষ প্রস্তুতি নিয়ে বিশদ আলোচনা হয়। সভায় বলা হয়, সরকার টালবাহানা করে পার পাবে না। পদত্যাগ করে জাতীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন দিতেই হবে। পিছনের দরজা দিয়ে ক্ষমতায় যাওয়ার দিন শেষ।

নিউজটি শেয়ার করুন

সরকার পতনের চূড়ান্ত কর্মসূচি ঘোষণা করবে ছাত্র যুব সমাবেশ

২০ অক্টোবর ছাত্র-যুব মহাসমাবেশ : আসছে কঠোর কর্মসূচি

আপডেট সময় ০৩:৫৯:৫০ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৮ অক্টোবর ২০২৩

‘অথর্ব প্রধান নির্বাচন কমিশনারের পদত্যাগ ও ব্যর্থ নির্বাচন কমিশন বাতিল, সংখ্যানুপাতিক নির্বাচন (চজ) পদ্ধতির প্রবর্তন, বিদ্যমান রাজনৈতিক সংকট উত্তরণে সংসদ ভেঙে দিয়ে জাতীয় সরকারের অধীনে একটি সুষ্ঠু-নিরপেক্ষ জাতীয় নির্বাচনের দাবিতে ২০ অক্টোবর (শুক্রবার) বাদ জুম’আ ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ‘ছাত্র যুব সমাবেশ’ অনুষ্ঠিত হবে।

সরকার পতনের এক দফা আন্দোলনের কর্মসূচি ঘোষণা করবে ছাত্র যুব সমাজ থেকে।

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করীম (চরমোনাই পীর)। সমাবেশের উদ্বোধন করবেন ইসলামী ছাত্র আন্দোলন বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় সভাপতি শরিফুল ইসলাম রিয়াদ। সভাপতিত্ব করবেন ইসলামী যুব আন্দোলন বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় সভাপতি মাওলানা মুহাম্মাদ নেছার উদ্দিন। আয়োজনে থাকবেন ইসলামী যুব আন্দোলন ও ইসলামী ছাত্র আন্দোলন। ছাত্র-যুব সমাবেশ সফলে ইতোমধ্যে ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে ছাত্র ও যুব আন্দোলন। স্মরণকালের বৃহত্তর সমাবেশে রূপ নেবে ছাত্র-যুব সমাবেশ।

উল্লেখ্য যে, গত ৭ অক্টোবর ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের সমাবেশ থেকে দলের আমীর এ কর্মসূচি ঘোষণা করেন। ছাত্র-যুব সমাবেশ থেকে পরবর্তী কঠোর কর্মসূচি ঘোষণা করার কথা রয়েছে।

এদিকে মঙ্গলবার বিকেলে ইসলামী যুব আন্দোলন ও ইসলামী ছাত্র আন্দোলন-এর এক যৌথ সভায় যুব আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সভাপতি মাওলানা মুহাম্মদ নেছার উদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। এতে ছাত্র আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সভাপতি শরিফুল ইসলাম রিয়াদ, যুব আন্দোলনের সেক্রেটারি জেনারেল মুফতী মানসুর আহমদ সাকী, ছাত্র আন্দোলনের সেক্রেটারী জেনারেল মুহাম্মদ ইউসুফ মানসুরসহ উভয় সংগঠনের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

সভায় ছাত্র-যুব সমাবেশের সর্বশেষ প্রস্তুতি নিয়ে বিশদ আলোচনা হয়। সভায় বলা হয়, সরকার টালবাহানা করে পার পাবে না। পদত্যাগ করে জাতীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন দিতেই হবে। পিছনের দরজা দিয়ে ক্ষমতায় যাওয়ার দিন শেষ।