ঢাকা ০৭:৩৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সিনিয়র নেতাদের পেছনে ফেলে দিয়ে সামনে এসে মোবাইল ফোনে সেলফি তুলছিল

কর্মীকে থাপ্পড় দিলো জেলা বিএনপির সভাপতি

নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ১১:১৩:৪৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২০ অক্টোবর ২০২৩
  • / ১১৯ বার পড়া হয়েছে

নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সভাপতি মুহাম্মদ গিয়াসউদ্দিন এক কর্মীকে থাপ্পড় মারছেন- এমন একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। তিনি নিজেও বিষয়টি স্বীকার করেছেন। রাজধানীর নয়াপল্টনে সমাবেশে মিছিল নিয়ে যাওয়ার সময় নেতা-কর্মীদের বিশৃঙ্খলার সময় এ কাণ্ড ঘটেছে বলে জানা গেছে।

ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে দেখা যায়, নীল রঙের শার্ট পরা জেলা বিএনপির সভাপতি গিয়াসউদ্দিন দৌড়ে গিয়ে মিছিলের সামনে সাদা শার্ট পরা একজনকে থাপ্পড় দেন। এ সময় ধাক্কা দিয়ে সামনে থেকে ওই ব্যক্তিকে সরিয়ে দেন। এ সময় গিয়াসউদ্দিন আরও একজন বয়স্ক লোককে ধাক্কা দিয়ে সরিয়ে দেন। নেতাকর্মীদের সঙ্গে চিৎকার-চেঁচামেচি করেন এবং একপর্যায়ে নেতাকর্মীদের দুই হাতের বুড়ো আঙুল উঁচিয়ে দেখাতে দেখা যায় তাকে।

বিএনপির কয়েকটি সূত্র জানায়, বুধবার দুপুর ৩টার দিকে নয়াপল্টনে যাওয়ার সময় ফকিরাপুল পুলিশ বক্সের সামনে নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির নেতাকর্মীরা জড়ো হন। সেখানে নেতাকর্মীরা সামনে চলে এলে মেজাজ হারিয়ে ফেলেন গিয়াসউদ্দিন। নেতাকর্মীদের ওপর ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন; ধমক ও ধাক্কা দেন। তার সঙ্গে এসে সালাউদ্দিন নামের এক কর্মীও নেতাকর্মীদের ধাক্কা দেওয়া শুরু করেন। তখন গিয়াসউদ্দিন সালাউদ্দিনকে থাপ্পড় দেন।

ভুক্তভোগী সালাউদ্দিন সাংবাদিকদের বলেন, ‘কিছু লোক মিছিলের সামনে এসে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা করলে আমি তাদের থামানোর চেষ্টা করি। তখন তিনি (জেলার সভাপতি গিয়াসউদ্দিন) আমাকে থাপ্পড় দেন। বিষয়টি কেউ হয়তো ভিডিও করেছে, পরে সেটি ভাইরাল হয়েছে।’

এ বিষয়ে জেলা বিএনপির সভাপতি মুহাম্মদ গিয়াসউদ্দিন বলেন, ‘মিছিল বের করার সময় অতি উৎসাহী কিছু কর্মী সিনিয়র নেতাদের পেছনে ফেলে দিয়ে সামনে এসে মোবাইল ফোনে সেলফি তুলছিল এবং বেয়াদবি করছিল। এতে সাংবাদিকদের ছবি তুলতে সমস্যা হচ্ছিল। তাদের ধমক দিয়ে বারণ করার চেষ্টা করি, কিন্তু তারা শোনেনি। তখন আমি আমার লোককে থাপ্পড় দিয়েছি। কেউ উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে সেটি ভিডিও করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দিয়েছে।’

নিউজটি শেয়ার করুন

সিনিয়র নেতাদের পেছনে ফেলে দিয়ে সামনে এসে মোবাইল ফোনে সেলফি তুলছিল

কর্মীকে থাপ্পড় দিলো জেলা বিএনপির সভাপতি

আপডেট সময় ১১:১৩:৪৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২০ অক্টোবর ২০২৩

নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সভাপতি মুহাম্মদ গিয়াসউদ্দিন এক কর্মীকে থাপ্পড় মারছেন- এমন একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। তিনি নিজেও বিষয়টি স্বীকার করেছেন। রাজধানীর নয়াপল্টনে সমাবেশে মিছিল নিয়ে যাওয়ার সময় নেতা-কর্মীদের বিশৃঙ্খলার সময় এ কাণ্ড ঘটেছে বলে জানা গেছে।

ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে দেখা যায়, নীল রঙের শার্ট পরা জেলা বিএনপির সভাপতি গিয়াসউদ্দিন দৌড়ে গিয়ে মিছিলের সামনে সাদা শার্ট পরা একজনকে থাপ্পড় দেন। এ সময় ধাক্কা দিয়ে সামনে থেকে ওই ব্যক্তিকে সরিয়ে দেন। এ সময় গিয়াসউদ্দিন আরও একজন বয়স্ক লোককে ধাক্কা দিয়ে সরিয়ে দেন। নেতাকর্মীদের সঙ্গে চিৎকার-চেঁচামেচি করেন এবং একপর্যায়ে নেতাকর্মীদের দুই হাতের বুড়ো আঙুল উঁচিয়ে দেখাতে দেখা যায় তাকে।

বিএনপির কয়েকটি সূত্র জানায়, বুধবার দুপুর ৩টার দিকে নয়াপল্টনে যাওয়ার সময় ফকিরাপুল পুলিশ বক্সের সামনে নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির নেতাকর্মীরা জড়ো হন। সেখানে নেতাকর্মীরা সামনে চলে এলে মেজাজ হারিয়ে ফেলেন গিয়াসউদ্দিন। নেতাকর্মীদের ওপর ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন; ধমক ও ধাক্কা দেন। তার সঙ্গে এসে সালাউদ্দিন নামের এক কর্মীও নেতাকর্মীদের ধাক্কা দেওয়া শুরু করেন। তখন গিয়াসউদ্দিন সালাউদ্দিনকে থাপ্পড় দেন।

ভুক্তভোগী সালাউদ্দিন সাংবাদিকদের বলেন, ‘কিছু লোক মিছিলের সামনে এসে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা করলে আমি তাদের থামানোর চেষ্টা করি। তখন তিনি (জেলার সভাপতি গিয়াসউদ্দিন) আমাকে থাপ্পড় দেন। বিষয়টি কেউ হয়তো ভিডিও করেছে, পরে সেটি ভাইরাল হয়েছে।’

এ বিষয়ে জেলা বিএনপির সভাপতি মুহাম্মদ গিয়াসউদ্দিন বলেন, ‘মিছিল বের করার সময় অতি উৎসাহী কিছু কর্মী সিনিয়র নেতাদের পেছনে ফেলে দিয়ে সামনে এসে মোবাইল ফোনে সেলফি তুলছিল এবং বেয়াদবি করছিল। এতে সাংবাদিকদের ছবি তুলতে সমস্যা হচ্ছিল। তাদের ধমক দিয়ে বারণ করার চেষ্টা করি, কিন্তু তারা শোনেনি। তখন আমি আমার লোককে থাপ্পড় দিয়েছি। কেউ উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে সেটি ভিডিও করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দিয়েছে।’