ঢাকা ০৭:৩৬ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

চবিতে ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিতে আবেদন আড়াই লাখ শিক্ষার্থীর

ক্যাম্পাস প্রতিনিধি:-
  • আপডেট সময় ০৬:৪৭:২৫ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২৪
  • / ৫৫ বার পড়া হয়েছে

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) ২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষের প্রথম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) ভর্তি পরীক্ষার আবেদন আড়াই লাখ অতিক্রম করেছে। মোট ২ লাখ ৫৪ হাজার ৬৫৯ জন শিক্ষার্থী আবেদন করেছে। যা আগের তুলনায় সর্বোচ্চ।

শুক্রবার (১৯ জানুয়ারি) বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন চবির ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. রাশেদ মোস্তফা।

এর আগে গত ৪ জানুয়ারি থেকে শুরু হয় ভর্তি আবেদন যা শেষ হয়েছে ১৮ জানুয়ারি রাত ১১টা ৫৯ মিনিটে। এখন পর্যন্ত আবেদন ফি জমা দিয়েছে ২ লাখ ৪০ হাজার ৮০৫ জন শিক্ষার্থী। বাকিরা ২০ জানুয়ারি রাত ১১টা ৫৯ মিনিট পর্যন্ত আবেদন ফি জমা দিতে পারবেন। এ ছাড়া ২৭ জানুয়ারি পর্যন্ত ৩০০ টাকা সার্ভিস চার্জ প্রদান করে আবেদনপত্র সংশোধনের সুযোগ রয়েছে।

এবার সর্বোচ্চ আবেদন পড়েছে ‘এ’ ইউনিটে (বিজ্ঞান) ১ লাখ ১ হাজার ৬৬৩ জন। ‘বি’ ইউনিট ও ‘বি-১’ উপ-ইউনিটে (কলা ও মানববিদ্যা) যথাক্রমে ৬৮ হাজার ৩৯৬ ও ২ হাজার ৭৬৩ জন শিক্ষার্থী আবেদন করেছে। এ ছাড়া ‘সি’ ইউনিটে (ব্যবসায়) ১৮ হাজার ৭৯৫ জন এবং ‘ডি’ ইউনিটে (সামাজিক বিজ্ঞান) ৫৯ হাজার ৯০৬ জন ও ‘ডি-১’ উপ-ইউনিটে (সামাজিক বিজ্ঞান) ৩ হাজার ১৪৬ জন ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী আবেদন করেছে।

২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষা আগামী ২ মার্চ ‘এ’ ইউনিটের মধ্য দিয়ে শুরু হবে। এরপর ৮ মার্চ ‘বি’ ইউনিটের, ৯ মার্চ ‘সি’ ইউনিটের এবং ১৬ মার্চ ‘ডি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এ ছাড়া ‘বি-১’ উপ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ৩ মার্চ ও ‘ডি-১’ উপ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ৪ মার্চ অনুষ্ঠিত হবে। ‘বি-১’ উপ-ইউনিটের ব্যবহারিক পরীক্ষা ১২, ১৩ ও ১৪ মার্চ এবং ‘ডি-১’ উপ-ইউনিটের ব্যবহারিক ১০ ও ১১ মার্চে অনুষ্ঠিত হবে।

এবারও দ্বিতীয়বার ভর্তি পরীক্ষা দেওয়ার ক্ষেত্রে শর্তসাপেক্ষে সুযোগ রাখা হয়েছে। দ্বিতীয়বার অংশগ্রহণকারীদের মোট নম্বর থেকে ৫ নম্বর কাটা হবে। ১০০ নম্বরের এমসিকিউ পরীক্ষার মাধ্যমে শুরু হবে ভর্তি পরীক্ষা। ভুল উত্তরের জন্য ০ দশমিক ২৫ নম্বর কাটা যাবে। মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিকের ফলের ভিত্তিতে সর্বোচ্চ ২০ নম্বর যোগ হবে।

প্রথমবারের মতো এবার চট্টগ্রামের বাইরে একাধিক কেন্দ্রে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে রয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি)।

নিউজটি শেয়ার করুন

চবিতে ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিতে আবেদন আড়াই লাখ শিক্ষার্থীর

আপডেট সময় ০৬:৪৭:২৫ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২৪

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) ২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষের প্রথম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) ভর্তি পরীক্ষার আবেদন আড়াই লাখ অতিক্রম করেছে। মোট ২ লাখ ৫৪ হাজার ৬৫৯ জন শিক্ষার্থী আবেদন করেছে। যা আগের তুলনায় সর্বোচ্চ।

শুক্রবার (১৯ জানুয়ারি) বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন চবির ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. রাশেদ মোস্তফা।

এর আগে গত ৪ জানুয়ারি থেকে শুরু হয় ভর্তি আবেদন যা শেষ হয়েছে ১৮ জানুয়ারি রাত ১১টা ৫৯ মিনিটে। এখন পর্যন্ত আবেদন ফি জমা দিয়েছে ২ লাখ ৪০ হাজার ৮০৫ জন শিক্ষার্থী। বাকিরা ২০ জানুয়ারি রাত ১১টা ৫৯ মিনিট পর্যন্ত আবেদন ফি জমা দিতে পারবেন। এ ছাড়া ২৭ জানুয়ারি পর্যন্ত ৩০০ টাকা সার্ভিস চার্জ প্রদান করে আবেদনপত্র সংশোধনের সুযোগ রয়েছে।

এবার সর্বোচ্চ আবেদন পড়েছে ‘এ’ ইউনিটে (বিজ্ঞান) ১ লাখ ১ হাজার ৬৬৩ জন। ‘বি’ ইউনিট ও ‘বি-১’ উপ-ইউনিটে (কলা ও মানববিদ্যা) যথাক্রমে ৬৮ হাজার ৩৯৬ ও ২ হাজার ৭৬৩ জন শিক্ষার্থী আবেদন করেছে। এ ছাড়া ‘সি’ ইউনিটে (ব্যবসায়) ১৮ হাজার ৭৯৫ জন এবং ‘ডি’ ইউনিটে (সামাজিক বিজ্ঞান) ৫৯ হাজার ৯০৬ জন ও ‘ডি-১’ উপ-ইউনিটে (সামাজিক বিজ্ঞান) ৩ হাজার ১৪৬ জন ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী আবেদন করেছে।

২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষা আগামী ২ মার্চ ‘এ’ ইউনিটের মধ্য দিয়ে শুরু হবে। এরপর ৮ মার্চ ‘বি’ ইউনিটের, ৯ মার্চ ‘সি’ ইউনিটের এবং ১৬ মার্চ ‘ডি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এ ছাড়া ‘বি-১’ উপ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ৩ মার্চ ও ‘ডি-১’ উপ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ৪ মার্চ অনুষ্ঠিত হবে। ‘বি-১’ উপ-ইউনিটের ব্যবহারিক পরীক্ষা ১২, ১৩ ও ১৪ মার্চ এবং ‘ডি-১’ উপ-ইউনিটের ব্যবহারিক ১০ ও ১১ মার্চে অনুষ্ঠিত হবে।

এবারও দ্বিতীয়বার ভর্তি পরীক্ষা দেওয়ার ক্ষেত্রে শর্তসাপেক্ষে সুযোগ রাখা হয়েছে। দ্বিতীয়বার অংশগ্রহণকারীদের মোট নম্বর থেকে ৫ নম্বর কাটা হবে। ১০০ নম্বরের এমসিকিউ পরীক্ষার মাধ্যমে শুরু হবে ভর্তি পরীক্ষা। ভুল উত্তরের জন্য ০ দশমিক ২৫ নম্বর কাটা যাবে। মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিকের ফলের ভিত্তিতে সর্বোচ্চ ২০ নম্বর যোগ হবে।

প্রথমবারের মতো এবার চট্টগ্রামের বাইরে একাধিক কেন্দ্রে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে রয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি)।