ঢাকা ০৮:০৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সুনামগঞ্জে রফিকুল ইসলাম মাদানী’কে ওয়াজ করতে না দেওয়ায় পুলিশ ফাড়ি ভাঙচুর

নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৯:৪৮:৪৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • / ১৬৩ বার পড়া হয়েছে

মাওলানা রফিকুল ইসলাম মাদানী

রফিকুল ইসলাম মাদানী’কে ওয়াজ করতে না দেওয়ায় পুলিশ ফাঁড়িতে হামলা
সুনামগঞ্জের প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে ও খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বাদাঘাট বাজার জামে মসজিদ প্রাঙ্গণে হিলফুল ফুযুল সংগঠনের উদ্যোগে আয়োজিত ওয়াজ মাহফিলে মাওলানা রফিকুল ইসলাম মাদানি ওয়াজ করতে আসবেন। তার ওয়াজ শুনতে বিভিন্ন এলাকার হাজার হাজার মানুষ জড়ো হয়।

পরে রাত ১২টায় মাইকে জানানো হয় তিনি আসতে পারবেন না ও ওয়াজ করতে পারবেন না। এতে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। এক পর্যায়ে মাইকে ঘোষণা করা হয় তিনি আসতে পারবেন না আইনি জটিলতার কারণে। আজকের মতো মাহফিলও শেষ। আপনারা নিজ নিজ বাড়িতে চলে যান। এ সময় উত্তেজনা সৃষ্টি হলে সবাইকে শান্ত থাকার জন্য আহ্বান জানান সংশ্লিষ্টরা। পরে অনেকেই নিজ নিজ বাড়িতে চলে গেলেও উত্তেজিত জনতা মিছিল বের করে।

এদিকে পুলিশ জানায়, উত্তেজিত জনতা পুলিশের বিরুদ্ধে নানা স্লোগান তুলে বিক্ষোভ মিছিল করে। এক পর্যায়ে মিছিল থেকে বাদাঘাট পুলিশ ফাঁড়িতে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করা হলে পুলিশ ৩০ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছোড়ে। এ ঘটনায় দুই পুলিশ সদস্যসহ ২০ জন আহত হন।

এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৫ যুবককে আটক করেছে পুলিশ। ঘটনার পর থেকে ফাঁড়িতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

খবর পেয়ে তাহিরপুর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। তিনি বলেন, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ২ রাউন্ড টিয়ারশেল ও ২৭ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছোড়া হয়। ৫ জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে।

এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে মামলা দায়ের করবে বলে তিনি আরও জানান।

নিউজটি শেয়ার করুন

সুনামগঞ্জে রফিকুল ইসলাম মাদানী’কে ওয়াজ করতে না দেওয়ায় পুলিশ ফাড়ি ভাঙচুর

আপডেট সময় ০৯:৪৮:৪৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২০ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

রফিকুল ইসলাম মাদানী’কে ওয়াজ করতে না দেওয়ায় পুলিশ ফাঁড়িতে হামলা
সুনামগঞ্জের প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে ও খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বাদাঘাট বাজার জামে মসজিদ প্রাঙ্গণে হিলফুল ফুযুল সংগঠনের উদ্যোগে আয়োজিত ওয়াজ মাহফিলে মাওলানা রফিকুল ইসলাম মাদানি ওয়াজ করতে আসবেন। তার ওয়াজ শুনতে বিভিন্ন এলাকার হাজার হাজার মানুষ জড়ো হয়।

পরে রাত ১২টায় মাইকে জানানো হয় তিনি আসতে পারবেন না ও ওয়াজ করতে পারবেন না। এতে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। এক পর্যায়ে মাইকে ঘোষণা করা হয় তিনি আসতে পারবেন না আইনি জটিলতার কারণে। আজকের মতো মাহফিলও শেষ। আপনারা নিজ নিজ বাড়িতে চলে যান। এ সময় উত্তেজনা সৃষ্টি হলে সবাইকে শান্ত থাকার জন্য আহ্বান জানান সংশ্লিষ্টরা। পরে অনেকেই নিজ নিজ বাড়িতে চলে গেলেও উত্তেজিত জনতা মিছিল বের করে।

এদিকে পুলিশ জানায়, উত্তেজিত জনতা পুলিশের বিরুদ্ধে নানা স্লোগান তুলে বিক্ষোভ মিছিল করে। এক পর্যায়ে মিছিল থেকে বাদাঘাট পুলিশ ফাঁড়িতে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করা হলে পুলিশ ৩০ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছোড়ে। এ ঘটনায় দুই পুলিশ সদস্যসহ ২০ জন আহত হন।

এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৫ যুবককে আটক করেছে পুলিশ। ঘটনার পর থেকে ফাঁড়িতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

খবর পেয়ে তাহিরপুর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। তিনি বলেন, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ২ রাউন্ড টিয়ারশেল ও ২৭ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছোড়া হয়। ৫ জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে।

এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে মামলা দায়ের করবে বলে তিনি আরও জানান।