ঢাকা ০২:৫৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এবার উপজেলা আ.লীগ নেতার আপত্তিকর ভিডিও ভাইরাল

নিউজ ডেস্ক:-
  • আপডেট সময় ০৩:১২:৪০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪
  • / ২০৭ বার পড়া হয়েছে

এক নারীর সঙ্গে অন্তরঙ্গ অবস্থায় বরগুনার তালতলী উপজেলা আ.লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও পচাকোড়ালীয়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক হাওলাদার।

বরগুনার তালতলী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও পচাকোড়ালীয়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক হাওলাদারের সঙ্গে এক নারীর আপত্তিকর ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওটি এখন টক অব দ্য টাউনে পরিণত হয়েছে।

বুধবার (১৭ এপ্রিল) ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে এ নিয়ে পুরো উপজেলায় আলোচনা সমালোচনার ঝড় বইছে।

এই ঘটনায় এলাকাবাসী ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ নেতাকর্মী মধ্যে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। তারা দ্রুত অভিযুক্ত নেতার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ও চেয়ারম্যান পদ থেকে পদত্যাগের দাবি জানান।

১ মিনিট ৩২ সেকেন্ডের সেই ভিডিওটিতে দেখা গেছে, চেয়ারম্যান রাজ্জাক হাওলাদার ওই নারীর সঙ্গে বেশ অন্তরঙ্গ অবস্থায় সময় কাটাচ্ছেন। জানা গেছে, এর আগেও উপজেলার কয়েকজন নেতার সঙ্গে ওই নারীর আপত্তিকর ভিডিও ভাইরাল হয়। এ নিয়ে এলাকায় ক্ষোভের সৃষ্টি হয়।

অপরদিকে ওই নারীর বিরুদ্ধে উপজেলার নিশানবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান ড. কামরুজ্জামান বাচ্চু মিয়া থানায় গত ১২ এপ্রিল পর্নোগ্রাফি আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার ১ নম্বর সাক্ষী ছিলেন পচাকোড়ালীয়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক হাওলাদার।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন আওয়ামী লীগ নেতা বলেন, একজন জনপ্রতিনিধি যদি তার নিজের লোভ লালসা ধরে রাখতে না পারে তাহলে পুরো এলাকার মানুষ কার ওপরে ভরসা করবে। তার এমন কর্মকাণ্ডে আমরা লজ্জিত। তাকে চেয়ারম্যান পদ থেকে বহিষ্কারের দাবি জানান তারা।

এ বিষয়ে পচাকোড়ালীয়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক হাওলাদারের সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করলেও তিনি মোবাইল ফোন রিসিভ করেননি।

বরগুনার তালতলী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও পচাকোড়ালীয়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক হাওলাদারের সঙ্গে এক নারীর আপত্তিকর ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওটি এখন টক অব দ্য টাউনে পরিণত হয়েছে।

বুধবার (১৭ এপ্রিল) ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে এ নিয়ে পুরো উপজেলায় আলোচনা সমালোচনার ঝড় বইছে।

এই ঘটনায় এলাকাবাসী ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ নেতাকর্মী মধ্যে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। তারা দ্রুত অভিযুক্ত নেতার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ও চেয়ারম্যান পদ থেকে পদত্যাগের দাবি জানান।

১ মিনিট ৩২ সেকেন্ডের সেই ভিডিওটিতে দেখা গেছে, চেয়ারম্যান রাজ্জাক হাওলাদার ওই নারীর সঙ্গে বেশ অন্তরঙ্গ অবস্থায় সময় কাটাচ্ছেন। জানা গেছে, এর আগেও উপজেলার কয়েকজন নেতার সঙ্গে ওই নারীর আপত্তিকর ভিডিও ভাইরাল হয়। এ নিয়ে এলাকায় ক্ষোভের সৃষ্টি হয়।

অপরদিকে ওই নারীর বিরুদ্ধে উপজেলার নিশানবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান ড. কামরুজ্জামান বাচ্চু মিয়া থানায় গত ১২ এপ্রিল পর্নোগ্রাফি আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার ১ নম্বর সাক্ষী ছিলেন পচাকোড়ালীয়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক হাওলাদার।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন আওয়ামী লীগ নেতা বলেন, একজন জনপ্রতিনিধি যদি তার নিজের লোভ লালসা ধরে রাখতে না পারে তাহলে পুরো এলাকার মানুষ কার ওপরে ভরসা করবে। তার এমন কর্মকাণ্ডে আমরা লজ্জিত। তাকে চেয়ারম্যান পদ থেকে বহিষ্কারের দাবি জানান তারা।

এ বিষয়ে পচাকোড়ালীয়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক হাওলাদারের সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করলেও তিনি মোবাইল ফোন রিসিভ করেননি।

এর আগে বরগুনার তালতলী উপজেলার ছাত্রলীগ নেতার সঙ্গে এক নারীর অন্তরঙ্গ ভিডিও ভাইরাল হয়।

ভাইরাল হওয়া ওই নেতার নাম মিনহাজুল আবেদীন মিঠু। তিনি তালতলী উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক।

জানা গেছে, শুক্রবার (১২ এপ্রিল) মিনহাজুল আবেদীন মিঠুর সঙ্গে ওই নারীর অন্তরঙ্গ ভিডিও সামাজিকমাধ্যমে ভাইরাল হয়। এক মিনিট চার সেকেন্ডের ওই ভিডিওতে দেখা গেছে মিঠু ওই নারীর সঙ্গে বেশ অন্তরঙ্গ অবস্থায় সময় কাটাচ্ছেন।

এ ঘটনায় তালতলী উপজেলা ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক মিনহাজুল আবেদীন মিঠুর মোবাইল ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও ফোন রিসিভ হয়নি। এ বিষয়ে তালতলী উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি সরোয়ার হোসাইন স্বপন জমাদ্দার বলেন, ভিডিওর কথা আমিও লোকমুখে শুনেছি। কিন্তু সত্য-মিথ্যা বলতে পারব না।

বরগুনা জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি রেজাউল কবির রেজা বলেন, ভিডিওর সত্যতা প্রমাণিত হলে তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নিতে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ কমিটিকে সুপারিশ করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এবার উপজেলা আ.লীগ নেতার আপত্তিকর ভিডিও ভাইরাল

আপডেট সময় ০৩:১২:৪০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪

বরগুনার তালতলী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও পচাকোড়ালীয়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক হাওলাদারের সঙ্গে এক নারীর আপত্তিকর ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওটি এখন টক অব দ্য টাউনে পরিণত হয়েছে।

বুধবার (১৭ এপ্রিল) ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে এ নিয়ে পুরো উপজেলায় আলোচনা সমালোচনার ঝড় বইছে।

এই ঘটনায় এলাকাবাসী ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ নেতাকর্মী মধ্যে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। তারা দ্রুত অভিযুক্ত নেতার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ও চেয়ারম্যান পদ থেকে পদত্যাগের দাবি জানান।

১ মিনিট ৩২ সেকেন্ডের সেই ভিডিওটিতে দেখা গেছে, চেয়ারম্যান রাজ্জাক হাওলাদার ওই নারীর সঙ্গে বেশ অন্তরঙ্গ অবস্থায় সময় কাটাচ্ছেন। জানা গেছে, এর আগেও উপজেলার কয়েকজন নেতার সঙ্গে ওই নারীর আপত্তিকর ভিডিও ভাইরাল হয়। এ নিয়ে এলাকায় ক্ষোভের সৃষ্টি হয়।

অপরদিকে ওই নারীর বিরুদ্ধে উপজেলার নিশানবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান ড. কামরুজ্জামান বাচ্চু মিয়া থানায় গত ১২ এপ্রিল পর্নোগ্রাফি আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার ১ নম্বর সাক্ষী ছিলেন পচাকোড়ালীয়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক হাওলাদার।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন আওয়ামী লীগ নেতা বলেন, একজন জনপ্রতিনিধি যদি তার নিজের লোভ লালসা ধরে রাখতে না পারে তাহলে পুরো এলাকার মানুষ কার ওপরে ভরসা করবে। তার এমন কর্মকাণ্ডে আমরা লজ্জিত। তাকে চেয়ারম্যান পদ থেকে বহিষ্কারের দাবি জানান তারা।

এ বিষয়ে পচাকোড়ালীয়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক হাওলাদারের সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করলেও তিনি মোবাইল ফোন রিসিভ করেননি।

বরগুনার তালতলী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও পচাকোড়ালীয়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক হাওলাদারের সঙ্গে এক নারীর আপত্তিকর ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওটি এখন টক অব দ্য টাউনে পরিণত হয়েছে।

বুধবার (১৭ এপ্রিল) ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে এ নিয়ে পুরো উপজেলায় আলোচনা সমালোচনার ঝড় বইছে।

এই ঘটনায় এলাকাবাসী ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ নেতাকর্মী মধ্যে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। তারা দ্রুত অভিযুক্ত নেতার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ও চেয়ারম্যান পদ থেকে পদত্যাগের দাবি জানান।

১ মিনিট ৩২ সেকেন্ডের সেই ভিডিওটিতে দেখা গেছে, চেয়ারম্যান রাজ্জাক হাওলাদার ওই নারীর সঙ্গে বেশ অন্তরঙ্গ অবস্থায় সময় কাটাচ্ছেন। জানা গেছে, এর আগেও উপজেলার কয়েকজন নেতার সঙ্গে ওই নারীর আপত্তিকর ভিডিও ভাইরাল হয়। এ নিয়ে এলাকায় ক্ষোভের সৃষ্টি হয়।

অপরদিকে ওই নারীর বিরুদ্ধে উপজেলার নিশানবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান ড. কামরুজ্জামান বাচ্চু মিয়া থানায় গত ১২ এপ্রিল পর্নোগ্রাফি আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার ১ নম্বর সাক্ষী ছিলেন পচাকোড়ালীয়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক হাওলাদার।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন আওয়ামী লীগ নেতা বলেন, একজন জনপ্রতিনিধি যদি তার নিজের লোভ লালসা ধরে রাখতে না পারে তাহলে পুরো এলাকার মানুষ কার ওপরে ভরসা করবে। তার এমন কর্মকাণ্ডে আমরা লজ্জিত। তাকে চেয়ারম্যান পদ থেকে বহিষ্কারের দাবি জানান তারা।

এ বিষয়ে পচাকোড়ালীয়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক হাওলাদারের সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করলেও তিনি মোবাইল ফোন রিসিভ করেননি।

এর আগে বরগুনার তালতলী উপজেলার ছাত্রলীগ নেতার সঙ্গে এক নারীর অন্তরঙ্গ ভিডিও ভাইরাল হয়।

ভাইরাল হওয়া ওই নেতার নাম মিনহাজুল আবেদীন মিঠু। তিনি তালতলী উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক।

জানা গেছে, শুক্রবার (১২ এপ্রিল) মিনহাজুল আবেদীন মিঠুর সঙ্গে ওই নারীর অন্তরঙ্গ ভিডিও সামাজিকমাধ্যমে ভাইরাল হয়। এক মিনিট চার সেকেন্ডের ওই ভিডিওতে দেখা গেছে মিঠু ওই নারীর সঙ্গে বেশ অন্তরঙ্গ অবস্থায় সময় কাটাচ্ছেন।

এ ঘটনায় তালতলী উপজেলা ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক মিনহাজুল আবেদীন মিঠুর মোবাইল ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও ফোন রিসিভ হয়নি। এ বিষয়ে তালতলী উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি সরোয়ার হোসাইন স্বপন জমাদ্দার বলেন, ভিডিওর কথা আমিও লোকমুখে শুনেছি। কিন্তু সত্য-মিথ্যা বলতে পারব না।

বরগুনা জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি রেজাউল কবির রেজা বলেন, ভিডিওর সত্যতা প্রমাণিত হলে তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নিতে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ কমিটিকে সুপারিশ করা হবে।