ঢাকা ০৭:০৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

২৫ ফিলিস্তিনপন্থী বিক্ষোভকারী আটক

নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ১২:০৮:০৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ৫ মে ২০২৪
  • / ১৩৮ বার পড়া হয়েছে

ক্যাম্পাস থেকে তাঁবু সরাতে অস্বীকার করায় যুক্তরাষ্ট্রের ভার্জিনিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিলিস্তিনপন্থী বিক্ষোভকারীদের সাথে পুলিশের সংঘর্ষ হয়েছে। এ ঘটনায় অন্তত ২৫ বিক্ষোভকারীকে আটক করা হয়েছে।

গাজায় ইসরাইলি আগ্রাসন বন্ধের দাবিতে গত মঙ্গলবার থেকে ভার্জিনিয়ায় বিক্ষোভ শুরু হয়। সেদিন থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাসনা ভবনের সামনের খোলা জায়গায় অবস্থান নিয়েছেন বিক্ষোভকারীরা।

শনিবার স্থানীয় টেলিভিশন ডব্লিউভিএডব্লিউ-টিভির একটি ফুটেজে দেখা যায়, ক্যাম্পাসে দাঙ্গার পোশাক পরে সারিবদ্ধভাবে দাঁড়িয়ে আছে পুলিশ। ওইসময় বিক্ষোভকারীদের ‘ফিলিস্তিনকে মুক্ত করো’ স্লোগান দিতে দেখা যায়।

এ বিষয়ে ওয়াশিংটন পোস্টকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি ও বিশ্ব অধ্যয়নের সহকারী অধ্যাপক লরা গোল্ডব্ল্যাট বলেন, ‘ক্যাম্পাসে পুলিশ ঢুকেই বিক্ষোভকারীদের দমন শুরু করে। তারা শিক্ষার্থীদের মাটিতে ফেলে দেয় এবং অসহ্য রাসায়নিক স্প্রে করে।

‘এগুলো শুরু হওয়ার পরপরই আমরা শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার কথা ভেবে উদ্বিগ্ন হয়ে পড়ি। ক্যাম্পাসে তারা এখন একেবারেই নিরাপদ নয়।’

তবে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন বলছে, ক্যাম্পাসে তাঁবু বা কোনো প্রকার ছাউনি টানানো বিশ্ববিদ্যালয়ের নীতিবিরুদ্ধ। তাদের (বিক্ষাভকারী) আগেই এগুলো সরিয়ে ফেলতে বলা হয়েছিল। কিন্তু তা না করায় পুলিশের সহযোগিতা চাওয়া হয়।

এক্স পোস্টে পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ওই এলাকায় বিধিবহির্ভূত একটি সমাবেশ ঘোষণা করা হয়েছিল। সেকারণে ক্যাম্পাসে অবস্থান নেয় পুলিশ।

গাজায় চলমান ইসরাইলি আগ্রসানের প্রতিবাদে কয়েক সপ্তাহ ধরে যুক্তরাষ্ট্রের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে বিক্ষোভ করছেন ফিলিস্তিনপন্থী শিক্ষার্থীরা। ক্রমেই তা দেশটির বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যে ছড়িয়ে পড়ছে। গত সপ্তাহে বিভিন্ন ক্যাম্পাস থেকে অন্তত ২ হাজার ২০০ বিক্ষাভকারীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এরই পরিপ্রেক্ষিতে সবশেষ ভার্জিনিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটল।
সূত্র : এএফপি

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

২৫ ফিলিস্তিনপন্থী বিক্ষোভকারী আটক

আপডেট সময় ১২:০৮:০৭ অপরাহ্ন, রবিবার, ৫ মে ২০২৪

ক্যাম্পাস থেকে তাঁবু সরাতে অস্বীকার করায় যুক্তরাষ্ট্রের ভার্জিনিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিলিস্তিনপন্থী বিক্ষোভকারীদের সাথে পুলিশের সংঘর্ষ হয়েছে। এ ঘটনায় অন্তত ২৫ বিক্ষোভকারীকে আটক করা হয়েছে।

গাজায় ইসরাইলি আগ্রাসন বন্ধের দাবিতে গত মঙ্গলবার থেকে ভার্জিনিয়ায় বিক্ষোভ শুরু হয়। সেদিন থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাসনা ভবনের সামনের খোলা জায়গায় অবস্থান নিয়েছেন বিক্ষোভকারীরা।

শনিবার স্থানীয় টেলিভিশন ডব্লিউভিএডব্লিউ-টিভির একটি ফুটেজে দেখা যায়, ক্যাম্পাসে দাঙ্গার পোশাক পরে সারিবদ্ধভাবে দাঁড়িয়ে আছে পুলিশ। ওইসময় বিক্ষোভকারীদের ‘ফিলিস্তিনকে মুক্ত করো’ স্লোগান দিতে দেখা যায়।

এ বিষয়ে ওয়াশিংটন পোস্টকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি ও বিশ্ব অধ্যয়নের সহকারী অধ্যাপক লরা গোল্ডব্ল্যাট বলেন, ‘ক্যাম্পাসে পুলিশ ঢুকেই বিক্ষোভকারীদের দমন শুরু করে। তারা শিক্ষার্থীদের মাটিতে ফেলে দেয় এবং অসহ্য রাসায়নিক স্প্রে করে।

‘এগুলো শুরু হওয়ার পরপরই আমরা শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার কথা ভেবে উদ্বিগ্ন হয়ে পড়ি। ক্যাম্পাসে তারা এখন একেবারেই নিরাপদ নয়।’

তবে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন বলছে, ক্যাম্পাসে তাঁবু বা কোনো প্রকার ছাউনি টানানো বিশ্ববিদ্যালয়ের নীতিবিরুদ্ধ। তাদের (বিক্ষাভকারী) আগেই এগুলো সরিয়ে ফেলতে বলা হয়েছিল। কিন্তু তা না করায় পুলিশের সহযোগিতা চাওয়া হয়।

এক্স পোস্টে পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ওই এলাকায় বিধিবহির্ভূত একটি সমাবেশ ঘোষণা করা হয়েছিল। সেকারণে ক্যাম্পাসে অবস্থান নেয় পুলিশ।

গাজায় চলমান ইসরাইলি আগ্রসানের প্রতিবাদে কয়েক সপ্তাহ ধরে যুক্তরাষ্ট্রের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে বিক্ষোভ করছেন ফিলিস্তিনপন্থী শিক্ষার্থীরা। ক্রমেই তা দেশটির বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যে ছড়িয়ে পড়ছে। গত সপ্তাহে বিভিন্ন ক্যাম্পাস থেকে অন্তত ২ হাজার ২০০ বিক্ষাভকারীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এরই পরিপ্রেক্ষিতে সবশেষ ভার্জিনিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটল।
সূত্র : এএফপি