ঢাকা ০৬:০১ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নির্বাচনে ফলাফল নিয়ে আওয়ামীলীগের নেতা কতৃক প্রিসাইডিং কর্মকর্তাদের ওপর হামলা

নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ১০:২২:১৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ মে ২০২৪
  • / ৬৩ বার পড়া হয়েছে

সিলেটের বালাগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণার পর একটি কেন্দ্রে কিছু লোক ভোট গ্রহণের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের ওপর হামলার চেষ্টা চালিয়েছে। পুলিশ তাৎক্ষণিকভাবে ফাঁকা গুলি ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনেছে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত আছে।

আজ বুধবার সন্ধ্যা সোয়া ৭টার দিকে উপজেলার পূর্ব পৈলনপুর ইউনিয়নের মাকশি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের সামনে এ ঘটনা ঘটে। তবে কারা এ হামলা চালিয়েছে, তা পুলিশ রাত নয়টা পর্যন্ত চিহ্নিত করতে পারেনি। এদিকে পুলিশ গুলিতে এক ব্যক্তি গুলিবিদ্ধ হয়েছেন বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানালেও ওই ব্যক্তির নাম-পরিচয় জানা যায়নি।

পুলিশ গুলিতে এক ব্যক্তি গুলিবিদ্ধ হয়েছেন বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানালেও ওই ব্যক্তির নাম-পরিচয় জানা যায়নি।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. মোস্তাকুর রহমান মফুর ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. আনহার মিয়ার সমর্থকদের মধ্যে দুপুরের দিকে কথা-কাটাকাটির এক পর্যায়ে সংঘর্ষ বাধে। এ সময় কেন্দ্রের প্রিসাইডিং কর্মকর্তা তাৎক্ষণিকভাবে বিষয়টি মিটমাট করে দেন। বিকেল চারটায় ভোট গ্রহণ শেষ গণনা শুরু হয়। সন্ধ্যায় ফলাফল ঘোষণা শেষে যখন ভোট গ্রহণের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা কেন্দ্র ছাড়ছিলেন, এ সময় হঠাৎই কিছু লোক দলবদ্ধ হয়ে হামলা চালানোর চেষ্টা চালায়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ চারটি গুলি ছোড়ে।

বালাগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ বদিউজ্জামান  বলেন, কে বা কারা আক্রমণ করেছে, তাৎক্ষণিকভাবে তা চিহ্নিত করা যায়নি। তবে গুলি ফাঁকা গুলি ছুড়ে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

নিউজটি শেয়ার করুন

নির্বাচনে ফলাফল নিয়ে আওয়ামীলীগের নেতা কতৃক প্রিসাইডিং কর্মকর্তাদের ওপর হামলা

আপডেট সময় ১০:২২:১৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ মে ২০২৪

সিলেটের বালাগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণার পর একটি কেন্দ্রে কিছু লোক ভোট গ্রহণের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের ওপর হামলার চেষ্টা চালিয়েছে। পুলিশ তাৎক্ষণিকভাবে ফাঁকা গুলি ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এনেছে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত আছে।

আজ বুধবার সন্ধ্যা সোয়া ৭টার দিকে উপজেলার পূর্ব পৈলনপুর ইউনিয়নের মাকশি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের সামনে এ ঘটনা ঘটে। তবে কারা এ হামলা চালিয়েছে, তা পুলিশ রাত নয়টা পর্যন্ত চিহ্নিত করতে পারেনি। এদিকে পুলিশ গুলিতে এক ব্যক্তি গুলিবিদ্ধ হয়েছেন বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানালেও ওই ব্যক্তির নাম-পরিচয় জানা যায়নি।

পুলিশ গুলিতে এক ব্যক্তি গুলিবিদ্ধ হয়েছেন বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানালেও ওই ব্যক্তির নাম-পরিচয় জানা যায়নি।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. মোস্তাকুর রহমান মফুর ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. আনহার মিয়ার সমর্থকদের মধ্যে দুপুরের দিকে কথা-কাটাকাটির এক পর্যায়ে সংঘর্ষ বাধে। এ সময় কেন্দ্রের প্রিসাইডিং কর্মকর্তা তাৎক্ষণিকভাবে বিষয়টি মিটমাট করে দেন। বিকেল চারটায় ভোট গ্রহণ শেষ গণনা শুরু হয়। সন্ধ্যায় ফলাফল ঘোষণা শেষে যখন ভোট গ্রহণের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা কেন্দ্র ছাড়ছিলেন, এ সময় হঠাৎই কিছু লোক দলবদ্ধ হয়ে হামলা চালানোর চেষ্টা চালায়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ চারটি গুলি ছোড়ে।

বালাগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ বদিউজ্জামান  বলেন, কে বা কারা আক্রমণ করেছে, তাৎক্ষণিকভাবে তা চিহ্নিত করা যায়নি। তবে গুলি ফাঁকা গুলি ছুড়ে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।