অন্যান্য

ছাত্ররা ভালো থাকলে, ভালো থাকবে বাংলাদেশ: ছাত্রশিবির সভাপতি

2021/11/16/_post_thumb-2021_11_16_20_02_52.jpg

ছাত্রবান্ধব পাঁচদফা কর্মসূচী ঘোষণাপূর্বক তা অতিশীঘ্রই বাস্তবায়নের জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন এদেশের তৌহিদবাদী ছাত্র-জনতার প্রাণপ্রিয় ছাত্রসংগঠন বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় সভাপতি সালাহউদ্দিন আইউবী। তিনি তার সোশ্যাল সাইট ফেসবুক একাউন্টে এসংক্রান্ত একটি পোস্ট করে এই দাবিগুলো উত্থাপন করেন। বাংলাদেশের মেধাবীদের প্রিয় ছাত্রসংগঠন ছাত্রশিবির সভাপতির ফেসবুক পোস্ট টি হুবহু নিম্নে তুলে ধরা হলো

"বেড়েছে তেলের দাম, প্রায় দ্বিগুণ হয়েছে বাস ভাড়া। নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম আকাশচুম্বী। ইতোমধ্যেই বাড়ির মালিকরা বাসা ভাড়া বৃদ্ধির ইঙ্গিত দিয়েছেন, কেউ কেউ ঘোষণাও দিয়েছেন। 

ঊর্ধ্বমুখী এ প্রবণতায় নাভিশ্বাস দেশবাসী। গত দুই বছরে করোনায় আটকে থাকা ছাত্রসমাজ সবচেয়ে কষ্টে আছে। কোচিং, টিউশনিসহ খণ্ডকালীন বিভিন্ন আয়ের উৎস বন্ধ হয়েছে অনেক আগেই। বিশেষ করে বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোতে পরীক্ষা কার্যক্রম শুরু হওয়ায় বছরের সকল বকেয়া বেতন দিতে হয়েছে অনেককে। 

সরকার নানা খাতে করোনা প্রতিরোধে শত শত কোটি টাকা বরাদ্দ দিলেও ছাত্রদের জন্য তেমন কোনো উদ্যোগ নেয়নি। স্রোতের সাথে তাল মিলিয়ে বৃদ্ধি করা হয়েছে শিক্ষা উপকরণের দাম। বাস ভাড়া বৃদ্ধির কারণে ছাত্রদের চলাফেরা হয়ে গিয়েছে ব্যয়বহুল। ছাত্র সমাজের এই দুর্ভোগ লাঘবে এগিয়ে আসতে হবে সবাইকে। অনতিবিলম্বে সরকারকে উদ্যোগ নিতে হবে আগামী প্রজন্মকে চিন্তামুক্ত করতে। আমাদের দাবি- 

১. ছাত্রদের জন্য সকল পরিবহন ভাড়া এক-তৃতীয়াংশ করতে হবে। 

২. করোনাকালীন প্রণোদনা হিসেবে সকল সরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ভর্তি ফ্রি করতে হবে।

৩. নার্সারি থেকে শুরু করে বিশ্ববিদ্যালয় পর্যন্ত সকল বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ভর্তি ফি অর্ধেক নির্ধারণ করতে হবে।  

৪. বাড়ির মালিকদেরকে ছাত্রদের জন্য বাসা ভাড়া দিতে উদ্বুদ্ধ করতে হবে। ব্যাচেলর হিসেবে বাসা ভাড়া বৃদ্ধি করা যাবে না। 

৫. সরকারি বেসরকারি সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের আবাসিক হল দ্রুত খুলে দিতে হবে। 

ছাত্ররা বাঁচলে বাঁচবে দেশ, 

ছাত্ররা ভালো থাকলে, ভালো থাকবে বাংলাদেশ।"

মন্তব্য