জাতীয় নির্বাচন

চৌদ্দগ্রামে জামায়াত সমর্থক ব্যবসায়ীকে ককটেল দিয়ে ফাঁসিয়েছে পুলিশ

ওবায়দুল

কুমিল্লা: চৌদ্দগ্রামের মুন্সিরহাট ইউনিয়নের যুগিরহাট গ্রামের জামায়াত সমর্থক ওষুধ ব্যবসায়ী ইয়াছিন মিয়াকে রোববার রাত সোয়া ৭টায় মুন্সিরহাট বাজারে তার দোকান থেকে পুলিশ প্রকাশ্যে আটক করে। পরে তাকে ব্যাগভর্তি ১২টি ককটেল দিয়ে ফাঁসানোর অভিযোগ করেছেন সাবেক এমপি ডাঃ সৈয়দ আবদুল্লাহ মোঃ তাহের।

এক বিবৃতিতে তিনি অভিযোগ করেন, প্রতিদিনের মতো এয়াছিন মুন্সিরহাট বাজারে তার মালিকানাধীন ‘ফয়সাল মেডিকেল হল’ এ ওষুধ বিক্রি করছেন। হঠাৎ করেই রোববার রাত সোয়া সাতটায় থানার এসআই আরিফের নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম তাকে দোকান থেকে আটক করে। পরে উপস্থিত জনতার সামনে তাকে হাতে ককটেলভর্তি ব্যাগ দিয়ে বলে-‘তার কাছে ককটেল ভর্তি ব্যাগটি পেয়েছে’।

আ’লীগের এজেন্ডা বাস্তবায়নের জন্য দলবাজ পুলিশ কর্মকর্তা আরিফ ভদ্র, নম্র ও সহজ-সরল ইয়াছিনকে ককটেল দিয়ে ফাঁসিয়েছে। এ হীন কাজের ফলে পুলিশের প্রতি মানুষের আস্থা কমছে।

ডাঃ তাহের আরও বলেন, একতরফা নির্বাচন করার জন্য আ’লীগের দেয়া তালিকা ধরেই পুলিশ বাড়ি বাড়ি নেতাকর্মীদের হুমকি-ধমকি দিচ্ছে। এছাড়া নেতাকর্মীদের প্রকাশ্যে খালিহাতে আটক করলেও অস্ত্র বা ককটেল দিয়ে ফাঁসিয়ে দিচ্ছে। নির্বাচন কমিশনের দেয়া নির্দেশন মেনে নিরপেক্ষ ভুমিকা পালনের জন্য পুলিশ প্রশাসনের প্রতি আহবান জানান তিনি।

মন্তব্য