ঢাকা ০৯:১৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
অবৈধভাবে ফুটপাতে হকার বসিয়ে প্রতি মাসে প্রায় অর্ধকোটি টাকা চাঁদা আদায়

চাঁদার টাকা ভাগাভাগি নিয়ে যুবলীগ-ছাত্রলীগের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া

নারায়নগঞ্জ প্রতিনিধি:-
  • আপডেট সময় ১১:০৮:৩৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৫ অক্টোবর ২০২৩
  • / ১৭৬ বার পড়া হয়েছে

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের ভুলতা এলাকায় ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের দুই পাশে ফুটপাতে চাঁদাবাজিকে কেন্দ্র করে যুবলীগ-ছাত্রলীগের মাঝে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। আজ রোববার (১৫ অক্টোবর) বিকেলে উপজেলার ভুলতায় এ ধাওয়া-পাল্টাধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এ সময় ভুলতা এলাকার মার্কেটের ব্যবসায়ী ও ক্রেতারা আতঙ্কিত হয়ে পড়েন।

স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ভুলতা এলাকায় ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের দুই পাশে নূর ম্যানশন, গাউছিয়া মার্কেট, তাঁতবাজার, আব্দুল সুপার মার্কেট, সিটি সুপার মার্কেট ও রিজোয়ান টাওয়ারসহ প্রায় ২০টি মার্কেট রয়েছে। এসব মার্কেটের সামনে অবৈধভাবে ফুটপাতে হকার বসিয়ে প্রতি মাসে প্রায় অর্ধকোটি টাকা চাঁদা আদায় হয়।

চাঁদার নিয়ন্ত্রণ করেন- উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ফয়সাল আলম শিকদার ও তার ভাই ফরহাদ শিকদার, ভুলতা ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন ও তার ভাই দোলন, গোলাকান্দাইল ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আল-আমিন, গোলাকান্দাইল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি বিদ্যুৎ হাসান, সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ, যুবলীগ নেতা সৌরভ, সিয়াম, কাউসারসহ দলীয় নেতাকর্মীরা। কিন্তু বেশ কিছুদিন ধরে ছাত্রলীগকর্মী ইমু ও কয়েকজন যুবলীগ নেতা মিলে ফুটপাতের চাঁদাবাজির নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা চালিয়ে আসছিল।

রোববার বিকেলে ছাত্রলীগকর্মী ইমুর লোকজন ও ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ফয়সাল সিকদারের লোকজন রামদা, চাপাতি, ছামুরাইসহ দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়ায় জড়িয়ে পড়ে। এ সময় একপক্ষ আরেকপক্ষকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। এ ঘটনায় ৮ পথচারী আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। ভুলতা এলাকার মার্কেটগুলোর ব্যবসায়ী ও মার্কেটে কেনাকাটা করতে আসা ক্রেতাদের মাঝে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। অনেকেই ভয়ে দোকানপাট বন্ধ করে দেয়।

এ ব্যাপারে ভুলতা ফাঁড়ির ইনচার্জ মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

অবৈধভাবে ফুটপাতে হকার বসিয়ে প্রতি মাসে প্রায় অর্ধকোটি টাকা চাঁদা আদায়

চাঁদার টাকা ভাগাভাগি নিয়ে যুবলীগ-ছাত্রলীগের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া

আপডেট সময় ১১:০৮:৩৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৫ অক্টোবর ২০২৩

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের ভুলতা এলাকায় ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের দুই পাশে ফুটপাতে চাঁদাবাজিকে কেন্দ্র করে যুবলীগ-ছাত্রলীগের মাঝে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। আজ রোববার (১৫ অক্টোবর) বিকেলে উপজেলার ভুলতায় এ ধাওয়া-পাল্টাধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এ সময় ভুলতা এলাকার মার্কেটের ব্যবসায়ী ও ক্রেতারা আতঙ্কিত হয়ে পড়েন।

স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ভুলতা এলাকায় ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের দুই পাশে নূর ম্যানশন, গাউছিয়া মার্কেট, তাঁতবাজার, আব্দুল সুপার মার্কেট, সিটি সুপার মার্কেট ও রিজোয়ান টাওয়ারসহ প্রায় ২০টি মার্কেট রয়েছে। এসব মার্কেটের সামনে অবৈধভাবে ফুটপাতে হকার বসিয়ে প্রতি মাসে প্রায় অর্ধকোটি টাকা চাঁদা আদায় হয়।

চাঁদার নিয়ন্ত্রণ করেন- উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ফয়সাল আলম শিকদার ও তার ভাই ফরহাদ শিকদার, ভুলতা ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন ও তার ভাই দোলন, গোলাকান্দাইল ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আল-আমিন, গোলাকান্দাইল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি বিদ্যুৎ হাসান, সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ, যুবলীগ নেতা সৌরভ, সিয়াম, কাউসারসহ দলীয় নেতাকর্মীরা। কিন্তু বেশ কিছুদিন ধরে ছাত্রলীগকর্মী ইমু ও কয়েকজন যুবলীগ নেতা মিলে ফুটপাতের চাঁদাবাজির নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা চালিয়ে আসছিল।

রোববার বিকেলে ছাত্রলীগকর্মী ইমুর লোকজন ও ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ফয়সাল সিকদারের লোকজন রামদা, চাপাতি, ছামুরাইসহ দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়ায় জড়িয়ে পড়ে। এ সময় একপক্ষ আরেকপক্ষকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। এ ঘটনায় ৮ পথচারী আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। ভুলতা এলাকার মার্কেটগুলোর ব্যবসায়ী ও মার্কেটে কেনাকাটা করতে আসা ক্রেতাদের মাঝে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। অনেকেই ভয়ে দোকানপাট বন্ধ করে দেয়।

এ ব্যাপারে ভুলতা ফাঁড়ির ইনচার্জ মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।