ঢাকা ০২:৫৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সংবাদ সম্মেলন থেকে গ্রেপ্তার হওয়া জামায়াতে ইসলামীর প্রচার সম্পাদক ও ফ্রন্টের জেনারেল সেক্রেটারি আইনজীবী মতিউর রহমান আকন্দের মুক্তির দাবি জানানো হয়

আনসার বাহিনীকে আটকের ক্ষমতা দেওয়া ‘সংবিধান বিরোধী’

নিউজ ডেস্ক:-
  • আপডেট সময় ০৬:৪৭:৫১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৬ অক্টোবর ২০২৩
  • / ১৫১ বার পড়া হয়েছে

সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির দক্ষিণ হলে সংবাদ সম্মেলন। ছবি: সংগৃহিত

আনসার বাহিনীকে আটক করার ক্ষমতা দেওয়া ‘সংবিধান পরিপন্থী’ বলে দাবি করেছেন সুপ্রিমকোর্ট বারের সাবেক সহ-সভাপতি সুব্রত চৌধুরী। তিনি বলেন, সরকার আনসার বাহিনীকে পুলিশের মতো সব ধরনের ক্ষমতা দিয়ে আরেকটা রক্ষীবাহিনী করতে চায়।

বুধবার সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির দক্ষিণ হলে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন। বিএনপি-জামায়াতপন্থি ও সরকারবিরোধী আইনজীবীদের মোর্চা ইউনাইটেড ল’ইয়ার্স ফ্রন্ট এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে। নতুন এই সংগঠনের কো-কনভেনর আইনজীবী সুব্রত চৌধুরী।

লিখিত বক্তব্যে ফ্রন্টের আহ্বায়ক জ্যেষ্ঠ আইনজীবী জয়নুল আবেদীন বলেন, দীর্ঘদিন ধরে দেশে একটি অনির্বাচিত সরকার ক্ষমতায় থাকায় এবং তারা একই প্রক্রিয়ায় ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে দলীয় কাজে যথেচ্ছ ব্যবহার করছে। ফলে রাষ্ট্রের এই বাহিনীর সদস্যরা তাদের পেশাদারিত্ব হারিয়ে ক্ষমতাসীন দলের একজন রাজনৈতিক কর্মীর মতো আচরণ করছে। তাদের এই অবৈধ কার্যক্রমের সর্বশেষ শিকার নারায়ণগঞ্জের দু’জন আইনজীবী।

আইনজীবী জয়নুল আবেদীন বলেন, নারায়ণগঞ্জ আদালতের দুই আইনজীবী খোরশেদ আলম মোল্লা ও সিদ্দিকুর রহমানকে গত ২৩ অক্টোবর আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী তাদের চেম্বার থেকে তুলে নিয়ে যায়। সারারাত তাদের ডিবি হেফাজতে রেখে পরদিন ছেড়ে দেওয়া হয়। তাদের বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ বা

মামলা চলমান নেই। এভাবে চেম্বার থেকে দুই আইনজীবীকে তুলে নিয়ে যাওয়ার ঘটনায় আমরা বিস্মিত হয়েছি। আইনজীবীরা পেশা পরিচালনায় আতঙ্ক বোধ করছেন। এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান এবং প্রধান বিচারপতি এই ঘটনায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবেন বলে প্রত্যাশা করেন তিনি।

সংবাদ সম্মেলন থেকে গ্রেপ্তার হওয়া জামায়াতে ইসলামীর প্রচার সম্পাদক ও ফ্রন্টের জেনারেল সেক্রেটারি আইনজীবী মতিউর রহমান আকন্দের মুক্তির দাবি জানানো হয়। এ সময় বার কাউন্সিলের নির্বাচিত সদস্য ব্যারিস্টার এ এম মাহবুব উদ্দিন খোকন, ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল, ব্যারিস্টার বদরুদ্দোজা বাদল, আবেদ রাজা, মহসীন রশীদ, জসিমউদ্দিনসহ অন্য আইনজীবীরা উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

সংবাদ সম্মেলন থেকে গ্রেপ্তার হওয়া জামায়াতে ইসলামীর প্রচার সম্পাদক ও ফ্রন্টের জেনারেল সেক্রেটারি আইনজীবী মতিউর রহমান আকন্দের মুক্তির দাবি জানানো হয়

আনসার বাহিনীকে আটকের ক্ষমতা দেওয়া ‘সংবিধান বিরোধী’

আপডেট সময় ০৬:৪৭:৫১ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৬ অক্টোবর ২০২৩

আনসার বাহিনীকে আটক করার ক্ষমতা দেওয়া ‘সংবিধান পরিপন্থী’ বলে দাবি করেছেন সুপ্রিমকোর্ট বারের সাবেক সহ-সভাপতি সুব্রত চৌধুরী। তিনি বলেন, সরকার আনসার বাহিনীকে পুলিশের মতো সব ধরনের ক্ষমতা দিয়ে আরেকটা রক্ষীবাহিনী করতে চায়।

বুধবার সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির দক্ষিণ হলে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন। বিএনপি-জামায়াতপন্থি ও সরকারবিরোধী আইনজীবীদের মোর্চা ইউনাইটেড ল’ইয়ার্স ফ্রন্ট এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে। নতুন এই সংগঠনের কো-কনভেনর আইনজীবী সুব্রত চৌধুরী।

লিখিত বক্তব্যে ফ্রন্টের আহ্বায়ক জ্যেষ্ঠ আইনজীবী জয়নুল আবেদীন বলেন, দীর্ঘদিন ধরে দেশে একটি অনির্বাচিত সরকার ক্ষমতায় থাকায় এবং তারা একই প্রক্রিয়ায় ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে দলীয় কাজে যথেচ্ছ ব্যবহার করছে। ফলে রাষ্ট্রের এই বাহিনীর সদস্যরা তাদের পেশাদারিত্ব হারিয়ে ক্ষমতাসীন দলের একজন রাজনৈতিক কর্মীর মতো আচরণ করছে। তাদের এই অবৈধ কার্যক্রমের সর্বশেষ শিকার নারায়ণগঞ্জের দু’জন আইনজীবী।

আইনজীবী জয়নুল আবেদীন বলেন, নারায়ণগঞ্জ আদালতের দুই আইনজীবী খোরশেদ আলম মোল্লা ও সিদ্দিকুর রহমানকে গত ২৩ অক্টোবর আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী তাদের চেম্বার থেকে তুলে নিয়ে যায়। সারারাত তাদের ডিবি হেফাজতে রেখে পরদিন ছেড়ে দেওয়া হয়। তাদের বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ বা

মামলা চলমান নেই। এভাবে চেম্বার থেকে দুই আইনজীবীকে তুলে নিয়ে যাওয়ার ঘটনায় আমরা বিস্মিত হয়েছি। আইনজীবীরা পেশা পরিচালনায় আতঙ্ক বোধ করছেন। এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান এবং প্রধান বিচারপতি এই ঘটনায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবেন বলে প্রত্যাশা করেন তিনি।

সংবাদ সম্মেলন থেকে গ্রেপ্তার হওয়া জামায়াতে ইসলামীর প্রচার সম্পাদক ও ফ্রন্টের জেনারেল সেক্রেটারি আইনজীবী মতিউর রহমান আকন্দের মুক্তির দাবি জানানো হয়। এ সময় বার কাউন্সিলের নির্বাচিত সদস্য ব্যারিস্টার এ এম মাহবুব উদ্দিন খোকন, ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল, ব্যারিস্টার বদরুদ্দোজা বাদল, আবেদ রাজা, মহসীন রশীদ, জসিমউদ্দিনসহ অন্য আইনজীবীরা উপস্থিত ছিলেন।