ঢাকা ০৮:০০ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
সারাদেশে সবজিসহ নিত্য প্রয়োজনীয় প্রায় সকল পন্যের দাম বেড়ে গেছে

ন্যায্যমূল্যে সবজি বিক্রি করছে ছাত্রলীগ

নিউজ ডেস্ক:-
  • আপডেট সময় ১১:৫২:২৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ২০ নভেম্বর ২০২৩
  • / ১১৩ বার পড়া হয়েছে

কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নির্দেশনার আলোকে সরাসরি কৃষকের কাছ থেকে সবজি কিনে কোনো ধরনের মুনাফা না করে ন্যায্যমূল্যে বিক্রি করেছে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগ। চট্টগ্রামের আনোয়ারা, কর্ণফুলী, মহানগরের আন্দরকিল্লা, কোতোয়ালিসহ বিভিন্ন স্থানে এ চিত্র দেখা গেছে।

দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগ নেতা মো. রবিউল হায়দার রুবেলের নেতৃত্বে এ কর্মসূচি পালন করা হয়। সোমবার (২০ নভেম্বর) সকাল থেকে দিনব্যাপী এ কর্মসূচি পালন করা হয়।

বিক্রিত সবজির মধ্যে রয়েছে মুলা প্রতি কেজি ২০ টাকা, বরবটি ৩০ টাকা, বাঁধাকপি ২৫ টাকা, শশা ২০ টাকা, মিষ্টি কুমড়া ২৫ টাকা, ফুলকপি ৩০ টাকা, লাউ ৩০ টাকা, করলা ৩০ টাকা, শাক ১০ টাকা ও বেগুন ৩০ টাকা দরে বিক্রি করা হয়। যা বাজারদরের অর্ধেক। এ সময় দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগের বিভিন্ন উপজেলা, পৌরসভা, থানা ও কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন ইউনিট শাখার নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগ নেতা মো. রবিউল হায়দার রুবেল বলেন, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি সাদ্দাম হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক শেখ ওয়ালী আসিফ ইনানের নির্দেশনায় কৃষকের কাছ থেকে কিনে কোনো ধরনের মুনাফা না করে এ সবজি ন্যায্যমূল্যে বিক্রি করা হয়েছে। ছাত্রলীগের কর্মীরা স্বাধীনতা যুদ্ধে হাসিমুখে ১৭ হাজার জীবন উৎসর্গ করেছে।

তিনি বলেন, শেখ হাসিনার নির্দেশে ছাত্রলীগ কৃষকের ধান কেটে দিয়েছে, করোনা মহামারিতে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে। এবারও ছাত্রলীগের কর্মীরা ন্যায্যমূল্যে সবজি বিক্রি করে মানুষের জীবনকে শান্তির সুখের করতে সর্বাত্মক ভূমিকা রাখার চেষ্টা করছি।

নিউজটি শেয়ার করুন

সারাদেশে সবজিসহ নিত্য প্রয়োজনীয় প্রায় সকল পন্যের দাম বেড়ে গেছে

ন্যায্যমূল্যে সবজি বিক্রি করছে ছাত্রলীগ

আপডেট সময় ১১:৫২:২৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ২০ নভেম্বর ২০২৩

কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নির্দেশনার আলোকে সরাসরি কৃষকের কাছ থেকে সবজি কিনে কোনো ধরনের মুনাফা না করে ন্যায্যমূল্যে বিক্রি করেছে চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগ। চট্টগ্রামের আনোয়ারা, কর্ণফুলী, মহানগরের আন্দরকিল্লা, কোতোয়ালিসহ বিভিন্ন স্থানে এ চিত্র দেখা গেছে।

দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগ নেতা মো. রবিউল হায়দার রুবেলের নেতৃত্বে এ কর্মসূচি পালন করা হয়। সোমবার (২০ নভেম্বর) সকাল থেকে দিনব্যাপী এ কর্মসূচি পালন করা হয়।

বিক্রিত সবজির মধ্যে রয়েছে মুলা প্রতি কেজি ২০ টাকা, বরবটি ৩০ টাকা, বাঁধাকপি ২৫ টাকা, শশা ২০ টাকা, মিষ্টি কুমড়া ২৫ টাকা, ফুলকপি ৩০ টাকা, লাউ ৩০ টাকা, করলা ৩০ টাকা, শাক ১০ টাকা ও বেগুন ৩০ টাকা দরে বিক্রি করা হয়। যা বাজারদরের অর্ধেক। এ সময় দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগের বিভিন্ন উপজেলা, পৌরসভা, থানা ও কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন ইউনিট শাখার নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগ নেতা মো. রবিউল হায়দার রুবেল বলেন, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি সাদ্দাম হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক শেখ ওয়ালী আসিফ ইনানের নির্দেশনায় কৃষকের কাছ থেকে কিনে কোনো ধরনের মুনাফা না করে এ সবজি ন্যায্যমূল্যে বিক্রি করা হয়েছে। ছাত্রলীগের কর্মীরা স্বাধীনতা যুদ্ধে হাসিমুখে ১৭ হাজার জীবন উৎসর্গ করেছে।

তিনি বলেন, শেখ হাসিনার নির্দেশে ছাত্রলীগ কৃষকের ধান কেটে দিয়েছে, করোনা মহামারিতে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে। এবারও ছাত্রলীগের কর্মীরা ন্যায্যমূল্যে সবজি বিক্রি করে মানুষের জীবনকে শান্তির সুখের করতে সর্বাত্মক ভূমিকা রাখার চেষ্টা করছি।