ঢাকা ০৭:০৮ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
এরই মধ্যে গাজায় ইসরায়েলি হামলায় ১৫ হাজারের বেশি ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে

৫২ দিন ধরে বিদ্যুৎহীন গাজাবাসী

নিউজ ডেস্ক:-
  • আপডেট সময় ১২:০৬:০৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২৩
  • / ৭০ বার পড়া হয়েছে

ইসরায়েল ও হামাসের যুদ্ধ প্রায় দুই মাস ধরে চলছে। মাঝে দুপক্ষ এক সপ্তাহের যুদ্ধবিরতিতে গেলেও গত শুক্রবার থেকে পুনরায় লড়াই শুরু হয়েছে। এরই মধ্যে গাজায় ইসরায়েলি হামলায় ১৫ হাজারের বেশি ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে। এমন পরিস্থিতির মধ্যেই আরেকটি ভয়াবহ তথ্য সামনে নিয়ে এসেছে জাতিসংঘ। বৈশ্বিক সংস্থাটি বলছে, গত ৫২ দিন ধরে বিদ্যুৎহীন গাজাবাসী। খবর আলজাজিরার।

গাজা ইলেকট্রিসিটি ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানির (জিইডিসিও) তথ্যের বরাতে জাতিসংঘ জানিয়েছে, ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় গত ১১ অক্টোবর থেকে বিদ্যুৎ নেই। ৮ অক্টোবর গাজায় বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ করে দেয় ইসরায়েল। এরপর ১১ অক্টোবর থেকে আর বিদ্যুৎ সরবরাহ করতে পারেনি গাজার বিদ্যুৎকেন্দ্রগুলো।

উল্লেখ্য, গত ৭ অক্টোবর ইসরায়েলে নজিরবিহীন হামলা চালিয়ে ১২০০ ইসরায়েলিকে হত্যার পাশাপাশি দুই শতাধিক ইসরায়েলি ও বিদেশি নাগরিককে বন্দি করে গাজায় নিয়ে আসে ফিলিস্তিনি স্বাধীনতাকামী সংগঠন হামাস। এমন নজিরবিহীন হামলার জবাবে হামাসকে নির্মূলের লক্ষ্যে তাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করে ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু সরকার।

দেড় মাস ধরে ইসরায়েলি বাহিনীর সর্বাত্মক হামলার পর গত ২৪ নভেম্বর প্রথমবারের মতো চার দিনের যুদ্ধবিরতি কার্যকর করে ইসরায়েল ও হামাস। এরপর দুই দফা এই যুদ্ধবিরতি চুক্তির মেয়াদ বাড়াতে একমত হয় দুপক্ষ। তবে শুক্রবার সকাল ৭টায় যুদ্ধবিরতির মেয়াদ শেষ হলেও চুক্তি বাড়ানো নিয়ে ঘোষণা দেয়নি কোনো পক্ষই। তবে গাজায় যুদ্ধবিরতি আবারও কার্যকর করতে আলোচনা চলছে বলে জানিয়েছে কাতার।

যুদ্ধবিরতি চুক্তির মেয়াদ শুক্রবার সকালে শেষ হলে ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় পুনরায় হামলা শুরু করে ইসরায়েলি সেনারা। নতুন করে হামলা শুরুর প্রথম দিনে গাজায় ১৮৪ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। এ নিয়ে ইসরায়েলি হামলায় গাজায় ১৫ হাজারের বেশি ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এরই মধ্যে গাজায় ইসরায়েলি হামলায় ১৫ হাজারের বেশি ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে

৫২ দিন ধরে বিদ্যুৎহীন গাজাবাসী

আপডেট সময় ১২:০৬:০৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২৩

ইসরায়েল ও হামাসের যুদ্ধ প্রায় দুই মাস ধরে চলছে। মাঝে দুপক্ষ এক সপ্তাহের যুদ্ধবিরতিতে গেলেও গত শুক্রবার থেকে পুনরায় লড়াই শুরু হয়েছে। এরই মধ্যে গাজায় ইসরায়েলি হামলায় ১৫ হাজারের বেশি ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে। এমন পরিস্থিতির মধ্যেই আরেকটি ভয়াবহ তথ্য সামনে নিয়ে এসেছে জাতিসংঘ। বৈশ্বিক সংস্থাটি বলছে, গত ৫২ দিন ধরে বিদ্যুৎহীন গাজাবাসী। খবর আলজাজিরার।

গাজা ইলেকট্রিসিটি ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানির (জিইডিসিও) তথ্যের বরাতে জাতিসংঘ জানিয়েছে, ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় গত ১১ অক্টোবর থেকে বিদ্যুৎ নেই। ৮ অক্টোবর গাজায় বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ করে দেয় ইসরায়েল। এরপর ১১ অক্টোবর থেকে আর বিদ্যুৎ সরবরাহ করতে পারেনি গাজার বিদ্যুৎকেন্দ্রগুলো।

উল্লেখ্য, গত ৭ অক্টোবর ইসরায়েলে নজিরবিহীন হামলা চালিয়ে ১২০০ ইসরায়েলিকে হত্যার পাশাপাশি দুই শতাধিক ইসরায়েলি ও বিদেশি নাগরিককে বন্দি করে গাজায় নিয়ে আসে ফিলিস্তিনি স্বাধীনতাকামী সংগঠন হামাস। এমন নজিরবিহীন হামলার জবাবে হামাসকে নির্মূলের লক্ষ্যে তাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করে ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু সরকার।

দেড় মাস ধরে ইসরায়েলি বাহিনীর সর্বাত্মক হামলার পর গত ২৪ নভেম্বর প্রথমবারের মতো চার দিনের যুদ্ধবিরতি কার্যকর করে ইসরায়েল ও হামাস। এরপর দুই দফা এই যুদ্ধবিরতি চুক্তির মেয়াদ বাড়াতে একমত হয় দুপক্ষ। তবে শুক্রবার সকাল ৭টায় যুদ্ধবিরতির মেয়াদ শেষ হলেও চুক্তি বাড়ানো নিয়ে ঘোষণা দেয়নি কোনো পক্ষই। তবে গাজায় যুদ্ধবিরতি আবারও কার্যকর করতে আলোচনা চলছে বলে জানিয়েছে কাতার।

যুদ্ধবিরতি চুক্তির মেয়াদ শুক্রবার সকালে শেষ হলে ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় পুনরায় হামলা শুরু করে ইসরায়েলি সেনারা। নতুন করে হামলা শুরুর প্রথম দিনে গাজায় ১৮৪ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। এ নিয়ে ইসরায়েলি হামলায় গাজায় ১৫ হাজারের বেশি ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে।