ঢাকা ০৫:০৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সিগারেট ফেলে দিতে বলায় ছাত্রলীগ নেতাকে ছুরিকাঘাত

নিউজ ডেস্ক:-
  • আপডেট সময় ১১:০৮:৩৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৫ ডিসেম্বর ২০২৩
  • / ১৩৬ বার পড়া হয়েছে

ফেনীতে ধূমপান করতে নিষেধ করায় এক ছাত্রলীগ নেতাকে ছুরিকাঘাত করা হয়েছে। রোববার বিকালে শহরের দোয়েল চত্বরে গুলশান মার্কেট গলিতে এ ঘটনা ঘটে।

ছুরিকাঘাতে আহত প্রসেনজিৎ ভৌমিক রুপম ফেনী সরকারি কলেজের অনার্সের শিক্ষার্থী। তিনি ফেনী পৌর ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলে জানিয়েছেন পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি আবুল হাসনাত তুষার।

স্থানীয়রা জানান, গুলশান মার্কেটের গলিতে ফেনীর মাস্টার পাড়ার বখাটে মুশফিকুর রহমান বাপ্পি (২৪) ও তার অনুসারী মোহন হাজারী, শাখাওয়াতসহ কয়েকজন ধূমপান করছিলেন। ওই সময় ফেনী পৌরসভার ১০ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের সহসভাপতি মো. রতন তাদের সিগারেট ফেলতে বলেন। এ নিয়ে তাদের মধ্যে বাগবিতণ্ডা হয়। ওই সময় রুপম রাস্তা দিয়ে যাচ্ছিলেন। তিনি ঘটনা শুনে বখাটেদের শাসান। পরে তারা রুপমকে আটকে রেখে তাদের বড় ভাই রাসেল হাজারীকে খবর দিয়ে এনে রুপমের ওপর চড়াও হন।

এক পর্যায়ে রুপমকে পেটে ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে ছুরিকাঘাত করে বখাটেরা পালিয়ে যায়। স্থানীয়রা রুপমকে ফেনী হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে চিকিৎসক চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে  রেফার্ড করেন।

এ বিষয়ে রাসেল হাজারী জানান, বাপ্পি, মোহন, শাখাওয়াত তাকে মীমাংসার কথা বলে নিয়ে যায়। সেখানে গেলে দু’পক্ষের সঙ্গে কথা বলার এক পর্যায়ে তার অনুসারীরা রুপমকে ছুরিকাঘাত করে। এরপর তিনি বিষয়টি এমপি নিজাম হাজারীকে জানান।

ফেনী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শহিদুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, ঘটনার বিষয়ে পুলিশ অবগত। তবে কেউ অভিযোগ করিনি। চিকিৎসায় ব্যস্ত থাকায় পরে মামলা দেবে বলে জানিয়েছে আহত রুপমের পরিবার। এরপরও পুলিশ অপরাধের সঙ্গে জড়িতদের গ্রেপ্তারে অভিযান চালাচ্ছে।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

সিগারেট ফেলে দিতে বলায় ছাত্রলীগ নেতাকে ছুরিকাঘাত

আপডেট সময় ১১:০৮:৩৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৫ ডিসেম্বর ২০২৩

ফেনীতে ধূমপান করতে নিষেধ করায় এক ছাত্রলীগ নেতাকে ছুরিকাঘাত করা হয়েছে। রোববার বিকালে শহরের দোয়েল চত্বরে গুলশান মার্কেট গলিতে এ ঘটনা ঘটে।

ছুরিকাঘাতে আহত প্রসেনজিৎ ভৌমিক রুপম ফেনী সরকারি কলেজের অনার্সের শিক্ষার্থী। তিনি ফেনী পৌর ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলে জানিয়েছেন পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি আবুল হাসনাত তুষার।

স্থানীয়রা জানান, গুলশান মার্কেটের গলিতে ফেনীর মাস্টার পাড়ার বখাটে মুশফিকুর রহমান বাপ্পি (২৪) ও তার অনুসারী মোহন হাজারী, শাখাওয়াতসহ কয়েকজন ধূমপান করছিলেন। ওই সময় ফেনী পৌরসভার ১০ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের সহসভাপতি মো. রতন তাদের সিগারেট ফেলতে বলেন। এ নিয়ে তাদের মধ্যে বাগবিতণ্ডা হয়। ওই সময় রুপম রাস্তা দিয়ে যাচ্ছিলেন। তিনি ঘটনা শুনে বখাটেদের শাসান। পরে তারা রুপমকে আটকে রেখে তাদের বড় ভাই রাসেল হাজারীকে খবর দিয়ে এনে রুপমের ওপর চড়াও হন।

এক পর্যায়ে রুপমকে পেটে ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে ছুরিকাঘাত করে বখাটেরা পালিয়ে যায়। স্থানীয়রা রুপমকে ফেনী হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে চিকিৎসক চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে  রেফার্ড করেন।

এ বিষয়ে রাসেল হাজারী জানান, বাপ্পি, মোহন, শাখাওয়াত তাকে মীমাংসার কথা বলে নিয়ে যায়। সেখানে গেলে দু’পক্ষের সঙ্গে কথা বলার এক পর্যায়ে তার অনুসারীরা রুপমকে ছুরিকাঘাত করে। এরপর তিনি বিষয়টি এমপি নিজাম হাজারীকে জানান।

ফেনী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শহিদুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, ঘটনার বিষয়ে পুলিশ অবগত। তবে কেউ অভিযোগ করিনি। চিকিৎসায় ব্যস্ত থাকায় পরে মামলা দেবে বলে জানিয়েছে আহত রুপমের পরিবার। এরপরও পুলিশ অপরাধের সঙ্গে জড়িতদের গ্রেপ্তারে অভিযান চালাচ্ছে।