ঢাকা ০৩:৪৪ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

জাতীয় পতাকা উড়িয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর নির্বাচনি প্রচারণা

নিউজ ডেস্ক:-
  • আপডেট সময় ১১:৫২:৩৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৫ ডিসেম্বর ২০২৩
  • / ৬৩ বার পড়া হয়েছে

মানিকগঞ্জ-৩ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক ব্যক্তিগত গাড়িতে জাতীয় পতাকা উড়িয়ে নির্বাচনি প্রচারণা চালানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে।

সোমবার সাটুরিয়া উপজেলার ফুকুরহাটি ইউনিয়নের মজিবর রহমান উচ্চ বিদ্যালয় মাঠ ও একই উপজেলার ফুকুরহাটি ইউনিয়নের পৃথক কয়েকটি নির্বাচনি সভায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী অংশ নিয়েছেন। এর আগে রোববার জেলা সদরের দুটি ইউনিয়নে জনসভা ও পথসভায় জাতীয় পতাকা লাগানো গাড়িতে করে উপস্থিত হন।

এ ব্যাপারে জেলা রিটার্নিং অফিসার ও জেলা প্রশাসক রেহেনা আকতার বলেন, তিনি রাষ্ট্রীয় কোনো কর্মসূচির বাইরে নির্বাচনি প্রচারণা চালাতে পারেন না।

সোমবার দুপুরে প্রথমে স্বাস্থ্যমন্ত্রী তার নির্বাচনি আসনের সাটুরিয়া উপজেলার হরগজ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে নির্বাচনি সভা করেন। এরপর হরগজ শহিদ স্মৃতি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ও ফুকুরহাটি ইউনিয়নের মজিবুর রহমান উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে পৃথকভাবে নির্বাচনি সভায় যোগদান করেন। যোগদানের সময় তার বহনকারী ব্যক্তিগত গাড়িতে জাতীয় পতাকা উড়ছিল। তবে নির্বাচনি সভাস্থলে গিয়ে গাড়ির পতাকাটি কাভার দিয়ে মোড়ানো হয়। গাড়ি ছাড়ার আগে গাড়ির পতাকাটি উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়।

এ ব্যাপারে জেলা রিটার্নিং অফিসার ও জেলা প্রশাসক রেহেনা আকতার সোমবার রাতে যুগান্তরকে জানান, তিনি রাষ্ট্রীয় কোনো কর্মসূচির বাইরে নির্বাচনি প্রচারণা চালাতে তার গাড়িতে জাতীয় পতাকা উড়াতে পারেন না। বিষয়টি নিয়ে কেউ এখনো অভিযোগ করেননি।

তবে তিনি জানান, নির্বাচনি আচরনবিধি নিয়ে একটি ইলেকট্ররাল মনিটরিং কমিটি আছে তারা বিষয়টি দেখবেন বলে জানান।

নিউজটি শেয়ার করুন

জাতীয় পতাকা উড়িয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর নির্বাচনি প্রচারণা

আপডেট সময় ১১:৫২:৩৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৫ ডিসেম্বর ২০২৩

মানিকগঞ্জ-৩ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক ব্যক্তিগত গাড়িতে জাতীয় পতাকা উড়িয়ে নির্বাচনি প্রচারণা চালানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে।

সোমবার সাটুরিয়া উপজেলার ফুকুরহাটি ইউনিয়নের মজিবর রহমান উচ্চ বিদ্যালয় মাঠ ও একই উপজেলার ফুকুরহাটি ইউনিয়নের পৃথক কয়েকটি নির্বাচনি সভায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী অংশ নিয়েছেন। এর আগে রোববার জেলা সদরের দুটি ইউনিয়নে জনসভা ও পথসভায় জাতীয় পতাকা লাগানো গাড়িতে করে উপস্থিত হন।

এ ব্যাপারে জেলা রিটার্নিং অফিসার ও জেলা প্রশাসক রেহেনা আকতার বলেন, তিনি রাষ্ট্রীয় কোনো কর্মসূচির বাইরে নির্বাচনি প্রচারণা চালাতে পারেন না।

সোমবার দুপুরে প্রথমে স্বাস্থ্যমন্ত্রী তার নির্বাচনি আসনের সাটুরিয়া উপজেলার হরগজ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে নির্বাচনি সভা করেন। এরপর হরগজ শহিদ স্মৃতি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ও ফুকুরহাটি ইউনিয়নের মজিবুর রহমান উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে পৃথকভাবে নির্বাচনি সভায় যোগদান করেন। যোগদানের সময় তার বহনকারী ব্যক্তিগত গাড়িতে জাতীয় পতাকা উড়ছিল। তবে নির্বাচনি সভাস্থলে গিয়ে গাড়ির পতাকাটি কাভার দিয়ে মোড়ানো হয়। গাড়ি ছাড়ার আগে গাড়ির পতাকাটি উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়।

এ ব্যাপারে জেলা রিটার্নিং অফিসার ও জেলা প্রশাসক রেহেনা আকতার সোমবার রাতে যুগান্তরকে জানান, তিনি রাষ্ট্রীয় কোনো কর্মসূচির বাইরে নির্বাচনি প্রচারণা চালাতে তার গাড়িতে জাতীয় পতাকা উড়াতে পারেন না। বিষয়টি নিয়ে কেউ এখনো অভিযোগ করেননি।

তবে তিনি জানান, নির্বাচনি আচরনবিধি নিয়ে একটি ইলেকট্ররাল মনিটরিং কমিটি আছে তারা বিষয়টি দেখবেন বলে জানান।