ঢাকা ০১:৫৪ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বান্ধবীর বাসায় বেড়াতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার তরুণী

নিউজ ডেস্ক:-
  • আপডেট সময় ১০:৩২:৪১ অপরাহ্ন, শনিবার, ৩০ ডিসেম্বর ২০২৩
  • / ১৯৩ বার পড়া হয়েছে

গাজীপুর মহানগরীর বাসন এলাকায় বান্ধবীর বাড়িতে বেড়াতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক তরুণী। এ ঘটনায় শুক্রবার রাতে ওই তরুণীর মা বাদী হয়ে মামলা করেন। শনিবার ভোরে অভিযান চালিয়ে বান্ধবী জুঁই আক্তারসহ (১৮) তিনজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

অন্য দুজন হলেন- মহানগরীর ভোগড়া বাসন সড়ক এলাকার রমিজ উদ্দিনের ছেলে শাকিল আহমেদ (২৫) ও রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার রায়পুর এলাকার আব্দুল রাজ্জাকের ছেলে রাকিবুল ইসলাম রাহুল (২০)।

বাসন থানার ওসি মো. আবু সিদ্দিক জানান, ওই তরুণী বৃহস্পতিবার রাতে বাসন এলাকায় বান্ধবীর ভাড়া বাসায় বেড়াতে যান।  জুঁই কৌশলে ওই তরুণীকে স্থানীয় শাকিলের ভাড়া বাড়িতে নিয়ে দরজা আটকিয়ে দেন।  সেখানে আগে থেকে অবস্থান নেওয়া শাকিল তরুণীকে ধর্ষণ করেন।  পরে শাকিলের বন্ধু রাহুলও কক্ষে ঢুকে তাকে ধর্ষণ করেন।  ঘটনাটি কাউকে না জানানোর কথা বলেন তারা; বললে হত্যার হুমকি দেন।

কিন্তু তরুণী ঘটনাটি তার মাকে খুলে বলেন।  ঘটনাটি জানার পর শুক্রবার রাতে তার মা মামলা করেন।

শনিবার ভোরে এলাকায় অভিযান চালিয়ে ওই আসামিদের গ্রেফতার করা হয়।  দুপুরে তাদের আদালতে পাঠানো হয়েছে।  ভিকটিমের স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

বান্ধবীর বাসায় বেড়াতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার তরুণী

আপডেট সময় ১০:৩২:৪১ অপরাহ্ন, শনিবার, ৩০ ডিসেম্বর ২০২৩

গাজীপুর মহানগরীর বাসন এলাকায় বান্ধবীর বাড়িতে বেড়াতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক তরুণী। এ ঘটনায় শুক্রবার রাতে ওই তরুণীর মা বাদী হয়ে মামলা করেন। শনিবার ভোরে অভিযান চালিয়ে বান্ধবী জুঁই আক্তারসহ (১৮) তিনজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

অন্য দুজন হলেন- মহানগরীর ভোগড়া বাসন সড়ক এলাকার রমিজ উদ্দিনের ছেলে শাকিল আহমেদ (২৫) ও রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার রায়পুর এলাকার আব্দুল রাজ্জাকের ছেলে রাকিবুল ইসলাম রাহুল (২০)।

বাসন থানার ওসি মো. আবু সিদ্দিক জানান, ওই তরুণী বৃহস্পতিবার রাতে বাসন এলাকায় বান্ধবীর ভাড়া বাসায় বেড়াতে যান।  জুঁই কৌশলে ওই তরুণীকে স্থানীয় শাকিলের ভাড়া বাড়িতে নিয়ে দরজা আটকিয়ে দেন।  সেখানে আগে থেকে অবস্থান নেওয়া শাকিল তরুণীকে ধর্ষণ করেন।  পরে শাকিলের বন্ধু রাহুলও কক্ষে ঢুকে তাকে ধর্ষণ করেন।  ঘটনাটি কাউকে না জানানোর কথা বলেন তারা; বললে হত্যার হুমকি দেন।

কিন্তু তরুণী ঘটনাটি তার মাকে খুলে বলেন।  ঘটনাটি জানার পর শুক্রবার রাতে তার মা মামলা করেন।

শনিবার ভোরে এলাকায় অভিযান চালিয়ে ওই আসামিদের গ্রেফতার করা হয়।  দুপুরে তাদের আদালতে পাঠানো হয়েছে।  ভিকটিমের স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।