ঢাকা ০৩:৫৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রেজাল্ট শিটে আগেই এজেন্টদের স্বাক্ষর নিলেন প্রিসাইডিং কর্মকর্তা

নিউজ ডেস্ক:-
  • আপডেট সময় ০৪:০৯:৪১ অপরাহ্ন, রবিবার, ৭ জানুয়ারী ২০২৪
  • / ১৯০ বার পড়া হয়েছে

ঢাকা-১৪ আসনে কল্যাণপুর গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজের একটি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ শেষ হওয়ার আগেই প্রার্থীদের এজেন্টদের কাছ থেকে রেজাল্ট শিটে (ফলাফল বিবরণী) স্বাক্ষর নিয়ে রাখা হয়েছে।

ভোট গ্রহণ শেষ হওয়ার পর গণনা করে রেজাল্ট শিটে প্রত্যেক প্রার্থীর এজেন্টের সই নিয়ে ফলাফল ঘোষণা করা হয়। খালি ফরমে আগে থেকে সই নেওয়ার মাধ্যমে ভোট কারচুপি করা হতে পারে বলে অভিযোগ ওই আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবিনা আক্তার তুহিনের কর্মীদের।

আসনটিতে আওয়ামী লীগের প্রার্থী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হাসান খান (নিখিল)।

কল্যাণপুর গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজে ১০টি ভোটকেন্দ্র রয়েছে।

আজ রোববার দুপুরে আগেই সই নেওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়ার সেখানে যান স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবিনা আক্তার। তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘প্রিসাইডিং কর্মকর্তা এই কাজটি কোন প্রার্থীর পক্ষে করেছেন, তা আমি জানি না।’

ঢাকা–১৪ আসনের কল্যাণপুর গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজের একটি কেন্দ্রে রেজাল্ট শিটে ভোট গ্রহণ শেষের আগেই এজেন্টদের স্বাক্ষর নিয়ে রাখেন প্রিসাইডিং কর্মকর্তা। খবর পেয়ে সেখানে বাড়তি পুলিশ পাঠানো হয়

অবশ্য এ সময় স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবিনা আক্তারের বোন হালিমা আক্তার সেখানে গেলে প্রিসাইডিং কর্মকর্তা তাঁকে বলেন, তিনি খালি ফলাফল শিটে এজেন্টদের স্বাক্ষর নিয়ে রেখেছেন পরে কাজের সুবিধার্থে। এজেন্টরা স্বেচ্ছায় সবাই স্বাক্ষর করেছেন।

প্রিসাইডিং কর্মকর্তা গোপাল চন্দ্র দাস হালিমা আক্তারকে আরও বলেন, ‘আপনার বোনকে বিষয়টি বোঝান।’

নিউজটি শেয়ার করুন

রেজাল্ট শিটে আগেই এজেন্টদের স্বাক্ষর নিলেন প্রিসাইডিং কর্মকর্তা

আপডেট সময় ০৪:০৯:৪১ অপরাহ্ন, রবিবার, ৭ জানুয়ারী ২০২৪

ঢাকা-১৪ আসনে কল্যাণপুর গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজের একটি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ শেষ হওয়ার আগেই প্রার্থীদের এজেন্টদের কাছ থেকে রেজাল্ট শিটে (ফলাফল বিবরণী) স্বাক্ষর নিয়ে রাখা হয়েছে।

ভোট গ্রহণ শেষ হওয়ার পর গণনা করে রেজাল্ট শিটে প্রত্যেক প্রার্থীর এজেন্টের সই নিয়ে ফলাফল ঘোষণা করা হয়। খালি ফরমে আগে থেকে সই নেওয়ার মাধ্যমে ভোট কারচুপি করা হতে পারে বলে অভিযোগ ওই আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবিনা আক্তার তুহিনের কর্মীদের।

আসনটিতে আওয়ামী লীগের প্রার্থী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হাসান খান (নিখিল)।

কল্যাণপুর গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজে ১০টি ভোটকেন্দ্র রয়েছে।

আজ রোববার দুপুরে আগেই সই নেওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়ার সেখানে যান স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবিনা আক্তার। তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘প্রিসাইডিং কর্মকর্তা এই কাজটি কোন প্রার্থীর পক্ষে করেছেন, তা আমি জানি না।’

ঢাকা–১৪ আসনের কল্যাণপুর গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজের একটি কেন্দ্রে রেজাল্ট শিটে ভোট গ্রহণ শেষের আগেই এজেন্টদের স্বাক্ষর নিয়ে রাখেন প্রিসাইডিং কর্মকর্তা। খবর পেয়ে সেখানে বাড়তি পুলিশ পাঠানো হয়

অবশ্য এ সময় স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবিনা আক্তারের বোন হালিমা আক্তার সেখানে গেলে প্রিসাইডিং কর্মকর্তা তাঁকে বলেন, তিনি খালি ফলাফল শিটে এজেন্টদের স্বাক্ষর নিয়ে রেখেছেন পরে কাজের সুবিধার্থে। এজেন্টরা স্বেচ্ছায় সবাই স্বাক্ষর করেছেন।

প্রিসাইডিং কর্মকর্তা গোপাল চন্দ্র দাস হালিমা আক্তারকে আরও বলেন, ‘আপনার বোনকে বিষয়টি বোঝান।’