ঢাকা ১১:৪৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

টিআইবির বক্তব্য জনমতের প্রতিফলন : নজরুল ইসলাম

নিউজ ডেস্ক:-
  • আপডেট সময় ০৬:৩৩:৩৫ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২৪
  • / ২৬২ বার পড়া হয়েছে

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের (টিআইবি) বক্তব্য জনগণের মতের প্রতিফলন বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান। তিনি বলেন, শুধু টিআইবি কেন, সবাই বলেছে নির্বাচন সুষ্ঠু হয়নি।

শুক্রবার (১৯ জানুয়ারি) সকালে শেরেবাংলা নগরে নির্বাচন নিয়ে টিআইবি বিএনপির পক্ষ নিয়ে কথা বলছে- আওয়ামী লীগ নেতাদের এমন বক্তব্যের প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে সমাধিতে শ্রদ্ধা জানান নেতাকর্মীরা।

তিনি আরও বলেন, নির্বাচন নিয়ে বিএনপি যা বলেছে তাও জনমতের প্রতিফলন। আমাদের কথার সঙ্গে যদি কারো কথা মিলে সেটা প্রসঙ্গ মেলানোর জন্য নয়। সেটা মিলে যায় সত্য বলার জন্য।

বাংলাদেশের নির্বাচন ও বিরোধী দলীয় নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তার নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের বক্তব্যের প্রসঙ্গে জানতে চাইলে নজরুল ইসলাম বলেন, বাংলাদেশের গণমানুষের কথা যে বলবে তাকে আমরা ধন্যবাদ জানাই। জনগণ যা বলে সেটা গুরুত্বপূর্ণ, তারা এই স্বৈরচার সরকারের শাসন পছন্দ করে না। সরকার যে আমাদের নেত্রী খালেদা জিয়া ও মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ নেতাদের অন্যায়ভাবে গ্রেপ্তার করে রেখেছে আমরা তার নিন্দা জানাই। যারাই এই অন্যায়, অনাচার ও জুলুমের পক্ষে কথা বলে তাদেরকে ধন্যবাদ জানাই।

নজরুল ইসলাম খান বলেন, শহীদ জিয়াউর রহমান যে গণতন্ত্র পুনপ্রতিষ্ঠা করেছিলেন, সেই গণতন্ত্র আবার মেরে ফেলা হয়েছে- সেটাকে পুনরুজ্জীবিত করার যে লড়াই, এই লড়াই চলছে এবং এই লড়াইয়ের যে বিভিন্ন কর্মসূচি আপনাদের জানিয়ে দেওয়া হয়।

আবদুল মঈন খান বলেন, বিএনপি লগি-বৈঠার রাজনীতিতে বিশ্বাস করে না আওয়ামী লীগের মতো। আমরা শান্তিপূর্ণ নিয়মতান্ত্রিক গণতান্ত্রিক রাজনীতিতে বিশ্বাসী এবং আমাদের যে কর্মসূচি চলমান রয়েছে এবং এই চলমান কর্মসূচি আমরা সম্পূর্ণ শান্তিপূর্ণ নিয়মতান্ত্রিক উপায়ে অব্যাহত রাখব এবং এই প্রক্রিয়ার মাধ্যমে আমরা গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করব।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, এই দেশ স্বাধীন হয়েছিল গণতন্ত্রের জন্য। সেই গণতন্ত্র আজকে বাংলাদেশে মৃত। এটা শুধু আমাদের কথা নয়, এটা শুধু বাংলাদেশের মানুষের কথা নয়। এটা সারা বিশ্বে যেসব গণতন্ত্রকামী মানুষ রয়েছেন, যেসব গণতন্ত্রকামী দেশগুলো রয়েছে এবং সারা বিশ্বের মানবাধিকার প্রতিষ্ঠানগুলো রয়েছে, তারা সবাই একবাক্যে একটি কথা বলেছে যে, বাংলাদেশে আজকে একদলীয় শাসনের পরিণত হয়েছে।

এখানে মানুষের কথা বলার স্বাধীনতা নেই, এখানে মানুষের মৌলিক অধিকার নেই, এখানে মানুষের ভোটের অধিকার নেই, এখানে মানুষের গণতন্ত্রের অধিকার নেই। এই পরিস্থিতিতে আমরা নতুন করে আমাদের বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান যিনি বাংলাদেশের ঘোষণা দিয়ে সম্মুখের সমরে মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছিলেন, সেই জিয়াউর রহমানের আদর্শকে আমরা ধারণ করে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার আন্দোলনে এগিয়ে যাব। এটাই আজকে আমাদের শপথ।

জিয়াউর রহমানের ৮৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বেলা ১১টায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আবদুল মঈন খান ও নজরুল ইসলাম খান নেতাকর্মীদের নিয়ে শেরে বাংলা নগরে জিয়ার কবরে গিয়ে পুস্পমাল্য অর্পণ করে এবং তার আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করেন। পরে স্থায়ী কমিটির দুই সদস্য সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন।

এ সময় দলের ভাইস চেয়ারম্যান অধ্যাপক এজেডএম জাহিদ হোসেন, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য জয়নুল আবদিন ফারুক, কেন্দ্রীয় নেতা মাহবুব উদ্দিন খোকন, সাখাওয়াত হাসান জীবন, কায়সার কামাল, তাইফুল ইসলাম টিপুসহ যুব দল, স্বেচ্ছাসেবক দল, মহিলা দল, ছাত্র দল, তাঁতী দল, মতস্যজীবী দল, মুক্তিযোদ্ধা দলের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

১৯৩৬ সালের ১৯ জানুয়ারি বগুড়ার গাবতলীর বাগবাড়ি গ্রামে জন্মগ্রহন করেন জিয়াউর রহমান। একাত্তর সালে মুক্তিযুদ্ধের ‘জেড’ ফোর্সের অধিনায়ক পরবর্তিতে সেনাবাহিনীর প্রধান এবং রাষ্ট্রপতি হন। ১৯৮১ সালের ৩০ মে চট্টগ্রাম সার্কিট হাউজে এক ব্যর্থ সেনা বিদ্রোহে নিহত হন রাষ্ট্রপতি জিয়া। রাষ্ট্র ক্ষমতা থাকাকালে ১৯৭৮ সালের ১ সেপ্টেম্বরে তিনি জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপি প্রতিষ্ঠা করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

টিআইবির বক্তব্য জনমতের প্রতিফলন : নজরুল ইসলাম

আপডেট সময় ০৬:৩৩:৩৫ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২৪

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের (টিআইবি) বক্তব্য জনগণের মতের প্রতিফলন বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান। তিনি বলেন, শুধু টিআইবি কেন, সবাই বলেছে নির্বাচন সুষ্ঠু হয়নি।

শুক্রবার (১৯ জানুয়ারি) সকালে শেরেবাংলা নগরে নির্বাচন নিয়ে টিআইবি বিএনপির পক্ষ নিয়ে কথা বলছে- আওয়ামী লীগ নেতাদের এমন বক্তব্যের প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে সমাধিতে শ্রদ্ধা জানান নেতাকর্মীরা।

তিনি আরও বলেন, নির্বাচন নিয়ে বিএনপি যা বলেছে তাও জনমতের প্রতিফলন। আমাদের কথার সঙ্গে যদি কারো কথা মিলে সেটা প্রসঙ্গ মেলানোর জন্য নয়। সেটা মিলে যায় সত্য বলার জন্য।

বাংলাদেশের নির্বাচন ও বিরোধী দলীয় নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তার নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের বক্তব্যের প্রসঙ্গে জানতে চাইলে নজরুল ইসলাম বলেন, বাংলাদেশের গণমানুষের কথা যে বলবে তাকে আমরা ধন্যবাদ জানাই। জনগণ যা বলে সেটা গুরুত্বপূর্ণ, তারা এই স্বৈরচার সরকারের শাসন পছন্দ করে না। সরকার যে আমাদের নেত্রী খালেদা জিয়া ও মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ নেতাদের অন্যায়ভাবে গ্রেপ্তার করে রেখেছে আমরা তার নিন্দা জানাই। যারাই এই অন্যায়, অনাচার ও জুলুমের পক্ষে কথা বলে তাদেরকে ধন্যবাদ জানাই।

নজরুল ইসলাম খান বলেন, শহীদ জিয়াউর রহমান যে গণতন্ত্র পুনপ্রতিষ্ঠা করেছিলেন, সেই গণতন্ত্র আবার মেরে ফেলা হয়েছে- সেটাকে পুনরুজ্জীবিত করার যে লড়াই, এই লড়াই চলছে এবং এই লড়াইয়ের যে বিভিন্ন কর্মসূচি আপনাদের জানিয়ে দেওয়া হয়।

আবদুল মঈন খান বলেন, বিএনপি লগি-বৈঠার রাজনীতিতে বিশ্বাস করে না আওয়ামী লীগের মতো। আমরা শান্তিপূর্ণ নিয়মতান্ত্রিক গণতান্ত্রিক রাজনীতিতে বিশ্বাসী এবং আমাদের যে কর্মসূচি চলমান রয়েছে এবং এই চলমান কর্মসূচি আমরা সম্পূর্ণ শান্তিপূর্ণ নিয়মতান্ত্রিক উপায়ে অব্যাহত রাখব এবং এই প্রক্রিয়ার মাধ্যমে আমরা গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করব।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, এই দেশ স্বাধীন হয়েছিল গণতন্ত্রের জন্য। সেই গণতন্ত্র আজকে বাংলাদেশে মৃত। এটা শুধু আমাদের কথা নয়, এটা শুধু বাংলাদেশের মানুষের কথা নয়। এটা সারা বিশ্বে যেসব গণতন্ত্রকামী মানুষ রয়েছেন, যেসব গণতন্ত্রকামী দেশগুলো রয়েছে এবং সারা বিশ্বের মানবাধিকার প্রতিষ্ঠানগুলো রয়েছে, তারা সবাই একবাক্যে একটি কথা বলেছে যে, বাংলাদেশে আজকে একদলীয় শাসনের পরিণত হয়েছে।

এখানে মানুষের কথা বলার স্বাধীনতা নেই, এখানে মানুষের মৌলিক অধিকার নেই, এখানে মানুষের ভোটের অধিকার নেই, এখানে মানুষের গণতন্ত্রের অধিকার নেই। এই পরিস্থিতিতে আমরা নতুন করে আমাদের বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান যিনি বাংলাদেশের ঘোষণা দিয়ে সম্মুখের সমরে মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছিলেন, সেই জিয়াউর রহমানের আদর্শকে আমরা ধারণ করে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার আন্দোলনে এগিয়ে যাব। এটাই আজকে আমাদের শপথ।

জিয়াউর রহমানের ৮৮তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বেলা ১১টায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আবদুল মঈন খান ও নজরুল ইসলাম খান নেতাকর্মীদের নিয়ে শেরে বাংলা নগরে জিয়ার কবরে গিয়ে পুস্পমাল্য অর্পণ করে এবং তার আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করেন। পরে স্থায়ী কমিটির দুই সদস্য সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন।

এ সময় দলের ভাইস চেয়ারম্যান অধ্যাপক এজেডএম জাহিদ হোসেন, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য জয়নুল আবদিন ফারুক, কেন্দ্রীয় নেতা মাহবুব উদ্দিন খোকন, সাখাওয়াত হাসান জীবন, কায়সার কামাল, তাইফুল ইসলাম টিপুসহ যুব দল, স্বেচ্ছাসেবক দল, মহিলা দল, ছাত্র দল, তাঁতী দল, মতস্যজীবী দল, মুক্তিযোদ্ধা দলের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

১৯৩৬ সালের ১৯ জানুয়ারি বগুড়ার গাবতলীর বাগবাড়ি গ্রামে জন্মগ্রহন করেন জিয়াউর রহমান। একাত্তর সালে মুক্তিযুদ্ধের ‘জেড’ ফোর্সের অধিনায়ক পরবর্তিতে সেনাবাহিনীর প্রধান এবং রাষ্ট্রপতি হন। ১৯৮১ সালের ৩০ মে চট্টগ্রাম সার্কিট হাউজে এক ব্যর্থ সেনা বিদ্রোহে নিহত হন রাষ্ট্রপতি জিয়া। রাষ্ট্র ক্ষমতা থাকাকালে ১৯৭৮ সালের ১ সেপ্টেম্বরে তিনি জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপি প্রতিষ্ঠা করেন।