ঢাকা ১২:৩৯ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

তীব্র শীতে বিপর্যস্ত যুক্তরাষ্ট্রের জনজীবন, মৃত্যু ৫০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:-
  • আপডেট সময় ০৪:৩৫:৩৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ জানুয়ারী ২০২৪
  • / ১০৩ বার পড়া হয়েছে

তুষারঝড় ও তীব্র শীতে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে যুক্তরাষ্ট্র। গত সপ্তাহে দেশটিতে প্রবল শৈত্য ঝড় আঘাত হেনেছে। এতে কমপক্ষে ৫০ জনের মৃত্যু হয়েছে।

শুক্রবার (১৯ জানুয়ারি) মার্কিন সংবাদমাধ্যম এনবিসি নিউজ জানিয়েছে, দেশের বিশাল অংশ নতুন করে শৈত্য ঝড়ের মোকাবিলার প্রস্তুতি নিচ্ছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, হিমশীতল তাপমাত্রা, তুষারপাত এবং ঘন বরফে আচ্ছাদিত সড়কপথে মারাত্মক দুর্ঘটনা ঘটেছে। বিমান চলাচল বাতিল, স্কুল বন্ধ এবং হাজার হাজার মানুষ বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। লাখ লাখ মার্কিনি নতুন করে বৈরি আবহাওয়া সতর্কতার অধীনে রয়েছে।

বৈরি আবহাওয়ায় ফাঁকা পড়ে আছে রাস্তাঘাট, খেলার মাঠসহ বেশিরভাগ জায়গা। তীব্র ঠান্ডা আর ত্রিশ থেকে নব্বই সেন্টিমিটার পর্যন্ত তুষারেরর আবরণে সবকিছু ঢেকে থাকায় বাইরে বের হতে পারছেন না বেশিরভাগ বাসিন্দা।

তীব্র তুষারপাতের কবলে পড়েছে যুক্তরাষ্ট্রের উত্তর পশ্চিমাঞ্চলীয় বিভিন্ন অঙ্গরাজ্য। স্থবির হয়ে পড়েছে রাজধানী ওয়াশিংটন ডিসি। এছাড়া নিউইয়র্কের পশ্চিমাঞ্চলের বাফালোসহ বিভিন্ন জায়গায়ও ব্যাহত হচ্ছে বাসিন্দাদের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা।

তুষার জমে থাকায় বৃহস্পতিবার নিউইয়র্কের রচেস্টার বিমানবন্দরের রানওয়ে থেকে ছিটকে পড়ে একটি যাত্রীবাহী বিমান। এছাড়া বৈরি আবহাওয়ার কারণে ব্যাহত হচ্ছে বিমান চলাচল, বাতিল হচ্ছে শত শত ফ্লাইট। এছাড়া দৃষ্টিসীমা কমে আসা ও রাস্তায় তুষার জমে সড়কে দুর্ঘটনার কারণে যুক্তরাষ্ট্রে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে হাজার হাজার কিলোমিটার মহাসড়ক।

গত কয়েকদিনে আমেরিকায় ২৪টির মতো তুষারঝড় আঘাত হেনেছে। এরমধ্যে বৃহস্পতিবার নেব্রাস্কা অঙ্গরাজ্যে তুষারঝড় আঘাত হানে। এতে রাতের তাপমাত্রা মাইনাস ১৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে নেমে আসবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর।

এমন বৈরি আবহাওয়া শনিবার পর্যন্ত অব্যাহত থাকবে বলেও সতর্ক করে তারা। তুষারঝড়ে যুক্তরাষ্ট্রের অনেক জায়গায় ৫ ফুটের বেশি বরফের স্তর জমেছে। তুষার জমে থাকায় বৃহস্পতিবার নিউইয়র্কের রচেস্টার বিমানবন্দরের রানওয়ে থেকে ছিটকে পড়ে একটি যাত্রীবাহী বিমান।

একটি ট্র্যাকিং ওয়েবসাইট পাওয়ার আউটেস ইউএস জানায়, শুক্রবার সন্ধ্যা পর্যন্ত তুষার ঝড়ে ওরেগনের ৭৫ হাজার গ্রাহককে বিদ্যুৎবিহীন রেখেছিল এবং রাজ্যের গভর্নর রাজ্যটিতে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

তীব্র শীতে বিপর্যস্ত যুক্তরাষ্ট্রের জনজীবন, মৃত্যু ৫০

আপডেট সময় ০৪:৩৫:৩৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২০ জানুয়ারী ২০২৪

তুষারঝড় ও তীব্র শীতে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে যুক্তরাষ্ট্র। গত সপ্তাহে দেশটিতে প্রবল শৈত্য ঝড় আঘাত হেনেছে। এতে কমপক্ষে ৫০ জনের মৃত্যু হয়েছে।

শুক্রবার (১৯ জানুয়ারি) মার্কিন সংবাদমাধ্যম এনবিসি নিউজ জানিয়েছে, দেশের বিশাল অংশ নতুন করে শৈত্য ঝড়ের মোকাবিলার প্রস্তুতি নিচ্ছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, হিমশীতল তাপমাত্রা, তুষারপাত এবং ঘন বরফে আচ্ছাদিত সড়কপথে মারাত্মক দুর্ঘটনা ঘটেছে। বিমান চলাচল বাতিল, স্কুল বন্ধ এবং হাজার হাজার মানুষ বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। লাখ লাখ মার্কিনি নতুন করে বৈরি আবহাওয়া সতর্কতার অধীনে রয়েছে।

বৈরি আবহাওয়ায় ফাঁকা পড়ে আছে রাস্তাঘাট, খেলার মাঠসহ বেশিরভাগ জায়গা। তীব্র ঠান্ডা আর ত্রিশ থেকে নব্বই সেন্টিমিটার পর্যন্ত তুষারেরর আবরণে সবকিছু ঢেকে থাকায় বাইরে বের হতে পারছেন না বেশিরভাগ বাসিন্দা।

তীব্র তুষারপাতের কবলে পড়েছে যুক্তরাষ্ট্রের উত্তর পশ্চিমাঞ্চলীয় বিভিন্ন অঙ্গরাজ্য। স্থবির হয়ে পড়েছে রাজধানী ওয়াশিংটন ডিসি। এছাড়া নিউইয়র্কের পশ্চিমাঞ্চলের বাফালোসহ বিভিন্ন জায়গায়ও ব্যাহত হচ্ছে বাসিন্দাদের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা।

তুষার জমে থাকায় বৃহস্পতিবার নিউইয়র্কের রচেস্টার বিমানবন্দরের রানওয়ে থেকে ছিটকে পড়ে একটি যাত্রীবাহী বিমান। এছাড়া বৈরি আবহাওয়ার কারণে ব্যাহত হচ্ছে বিমান চলাচল, বাতিল হচ্ছে শত শত ফ্লাইট। এছাড়া দৃষ্টিসীমা কমে আসা ও রাস্তায় তুষার জমে সড়কে দুর্ঘটনার কারণে যুক্তরাষ্ট্রে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে হাজার হাজার কিলোমিটার মহাসড়ক।

গত কয়েকদিনে আমেরিকায় ২৪টির মতো তুষারঝড় আঘাত হেনেছে। এরমধ্যে বৃহস্পতিবার নেব্রাস্কা অঙ্গরাজ্যে তুষারঝড় আঘাত হানে। এতে রাতের তাপমাত্রা মাইনাস ১৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে নেমে আসবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর।

এমন বৈরি আবহাওয়া শনিবার পর্যন্ত অব্যাহত থাকবে বলেও সতর্ক করে তারা। তুষারঝড়ে যুক্তরাষ্ট্রের অনেক জায়গায় ৫ ফুটের বেশি বরফের স্তর জমেছে। তুষার জমে থাকায় বৃহস্পতিবার নিউইয়র্কের রচেস্টার বিমানবন্দরের রানওয়ে থেকে ছিটকে পড়ে একটি যাত্রীবাহী বিমান।

একটি ট্র্যাকিং ওয়েবসাইট পাওয়ার আউটেস ইউএস জানায়, শুক্রবার সন্ধ্যা পর্যন্ত তুষার ঝড়ে ওরেগনের ৭৫ হাজার গ্রাহককে বিদ্যুৎবিহীন রেখেছিল এবং রাজ্যের গভর্নর রাজ্যটিতে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছেন।