ঢাকা ০৪:০০ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

মহানবী (সাঃ) এর জীবনী পড়ে ড. আসিফ নজরুলের উপলব্ধি

নিউজ ডেস্ক:-
  • আপডেট সময় ০৬:৫১:২০ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ জানুয়ারী ২০২৪
  • / ৯২ বার পড়া হয়েছে

আসিফ নজরুল

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক ড. আসিফ নজরুল লেখালেখিতে বেশ সুনাম অর্জন করেছেন। ধর্ম নিয়ে তার তেমন কথা না থাকলেও ইদানীং তিনি ধর্ম নিয়ে বেশ লিখছেন নিজের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

রবিবার (২১ জানুয়ারি) নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেইজে আসিফ নজরুল নিজের উপলব্ধি লিখেছেন। বিশেষ করে মহানবী (সাঃ) এর জীবনী পড়ে ড. আসিফ নজরুলের এই  উপলব্ধি হয়েছে।

তিনি লিখেছেন, আমার জীবনের একটা বড় সময় কেটেছে ধর্মীয় বই না পড়ে। এখন যখন পড়ি, বিশেষ করে আমাদের প্রিয় মহানবীর (সাঃ) জীবনী, মনে হয় কি বিরাট ভুল করেছি। উনি কি শুধু মহানবী ছিলেন? প্রায় ৭/৮ টা উনার জীবনীগ্রন্থ পড়েছি। এরমধ্যে আছে ক্যারেন আর্মষ্ট্রং, মার্টিন লিংস, আদিল সালাহির মতো স্বনামধন্য লেখকদের বই। উনার সম্পর্কে আগের চেয়ে অনেক বেশ জানি এখন।

ড. আসিফ নজরুল আরও লিখেছেন, আমাদের মহানবী (সাঃ) শুধু শ্রেষ্ঠ নবী ছিলেন না। তিনি ছিলেন একজন অসাধারণ সময়নায়ক, রাষ্ট্রনায়ক এবং দলনেতা। তিনি যে রাষ্ট্রের জন্ম দিয়েছিলেন, তার মতো শান্তিময়, কল্যানকর ও মানবিক রাষ্ট্র পৃথিবীর ইতিহাসে খুঁজে পাওয়া যাবে না। উনার বিনয়, সততা, পরোপকার, দয়া ও ক্ষমাশীলতা ছিল তুলনাহীন।  আমাদের এক শ্রেনীর শিক্ষিত মানুষ উনার গুনগান শুনতে অস্বস্তি বোধ করেন। আরেক শ্রেনী না জেনে মন্তব্য করেন।

শেখার শেষে তিনি দোয়া কামনা করে লিখেছেন, আল্লাহ্-র কাছে শোকর করি, আমি দেরীতে হলেও মহানবী (সাঃ)  উপর পড়াশোনা করছি। যদি আমার ভাগ্যে থাকে, কিশোর পাঠকদের উপযোগী করে উনার জীবনী রচনারও ইচ্ছে রাখি। আপনারা আমার জন্য দোয়া করবেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

মহানবী (সাঃ) এর জীবনী পড়ে ড. আসিফ নজরুলের উপলব্ধি

আপডেট সময় ০৬:৫১:২০ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ জানুয়ারী ২০২৪

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক ড. আসিফ নজরুল লেখালেখিতে বেশ সুনাম অর্জন করেছেন। ধর্ম নিয়ে তার তেমন কথা না থাকলেও ইদানীং তিনি ধর্ম নিয়ে বেশ লিখছেন নিজের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

রবিবার (২১ জানুয়ারি) নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেইজে আসিফ নজরুল নিজের উপলব্ধি লিখেছেন। বিশেষ করে মহানবী (সাঃ) এর জীবনী পড়ে ড. আসিফ নজরুলের এই  উপলব্ধি হয়েছে।

তিনি লিখেছেন, আমার জীবনের একটা বড় সময় কেটেছে ধর্মীয় বই না পড়ে। এখন যখন পড়ি, বিশেষ করে আমাদের প্রিয় মহানবীর (সাঃ) জীবনী, মনে হয় কি বিরাট ভুল করেছি। উনি কি শুধু মহানবী ছিলেন? প্রায় ৭/৮ টা উনার জীবনীগ্রন্থ পড়েছি। এরমধ্যে আছে ক্যারেন আর্মষ্ট্রং, মার্টিন লিংস, আদিল সালাহির মতো স্বনামধন্য লেখকদের বই। উনার সম্পর্কে আগের চেয়ে অনেক বেশ জানি এখন।

ড. আসিফ নজরুল আরও লিখেছেন, আমাদের মহানবী (সাঃ) শুধু শ্রেষ্ঠ নবী ছিলেন না। তিনি ছিলেন একজন অসাধারণ সময়নায়ক, রাষ্ট্রনায়ক এবং দলনেতা। তিনি যে রাষ্ট্রের জন্ম দিয়েছিলেন, তার মতো শান্তিময়, কল্যানকর ও মানবিক রাষ্ট্র পৃথিবীর ইতিহাসে খুঁজে পাওয়া যাবে না। উনার বিনয়, সততা, পরোপকার, দয়া ও ক্ষমাশীলতা ছিল তুলনাহীন।  আমাদের এক শ্রেনীর শিক্ষিত মানুষ উনার গুনগান শুনতে অস্বস্তি বোধ করেন। আরেক শ্রেনী না জেনে মন্তব্য করেন।

শেখার শেষে তিনি দোয়া কামনা করে লিখেছেন, আল্লাহ্-র কাছে শোকর করি, আমি দেরীতে হলেও মহানবী (সাঃ)  উপর পড়াশোনা করছি। যদি আমার ভাগ্যে থাকে, কিশোর পাঠকদের উপযোগী করে উনার জীবনী রচনারও ইচ্ছে রাখি। আপনারা আমার জন্য দোয়া করবেন।