ঢাকা ০৩:১০ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আওয়ামীলীগ ঐতিহ্যগতভাবেই গণতন্ত্রবিরোধী শক্তি : মির্জা ফখরুল

নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৬:৫৯:২৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ১০ মার্চ ২০২৪
  • / ৫৮ বার পড়া হয়েছে

আওয়ামী লীগ ঐতিহ্যগতভাবেই গণতন্ত্রবিরোধী শক্তি বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজলকে গ্রেফতারের ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান তিনি।

আজ রোববার এক বিবৃতিতে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘আওয়ামী লীগ ঐতিহ্যগতভাবেই গণতন্ত্রবিরোধী শক্তি। জনগণকে মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দিয়ে ক্ষমতা দখল করে সেটিকে চিরস্থায়ী করার বন্দোবস্তোতে লিপ্ত রয়েছে। আর সেজন্য তারা দেশের সকল সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানকে ভেঙে ধ্বংসস্তুপে পরিণত করেছে। এরা গণতন্ত্রমনা নানা শ্রেণী-পেশার মানুষকে অবরুদ্ধ করে রাখতে চায়। মানুষের কণ্ঠকে স্তব্ধ করতে রাষ্ট্রকে নিপীড়ণযন্ত্রে পরিণত করেছে তারা। দেশকে মিথ্যা মামলা, গ্রেফতার আর সহিংস হামলার এক নৈরাজ্যকর পরিস্থিতির মধ্যে ঠেলে দেয়া হয়েছে। ৭ জানুয়ারির ডামি নির্বাচনের পর ক্ষমতা দখল করে এর তীব্রতা আরো বৃদ্ধি করা হয়েছে।

সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল এবং সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক নির্বাহী সদস্য ব্যারিস্টার ওজমান চৌধুরীকে গ্রেফতারের ঘটনা সেটিরই নির্মম বহিঃপ্রকাশ। সরকারের জুলুমের হাত থেকে দেশের ভিন্ন মতের খ্যাতনামা আইনজীবীদের ছাড় দেয়া হচ্ছে না। চারিদিকে ভয় ও আতঙ্কের পরিবেশ বজায় রেখে আওয়ামী ডামি সরকার নিজেদের ক্ষমতা টিকিয়ে রাখার অপচেষ্টা চালাচ্ছে। কিন্তু জনগণের সম্মিলিত শক্তির কাছে তাদের পরাজয় বরণ করতেই হবে।

অবিলম্বে ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল এবং ব্যারিস্টার ওজমান চৌধুরীর নিঃশর্ত মুক্তিসহ তাদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত বানোয়াট মামলা প্রত্যাহারের জোর আহবান জানান মির্জা ফখরুল।

নিউজটি শেয়ার করুন

আওয়ামীলীগ ঐতিহ্যগতভাবেই গণতন্ত্রবিরোধী শক্তি : মির্জা ফখরুল

আপডেট সময় ০৬:৫৯:২৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ১০ মার্চ ২০২৪

আওয়ামী লীগ ঐতিহ্যগতভাবেই গণতন্ত্রবিরোধী শক্তি বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজলকে গ্রেফতারের ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান তিনি।

আজ রোববার এক বিবৃতিতে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘আওয়ামী লীগ ঐতিহ্যগতভাবেই গণতন্ত্রবিরোধী শক্তি। জনগণকে মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দিয়ে ক্ষমতা দখল করে সেটিকে চিরস্থায়ী করার বন্দোবস্তোতে লিপ্ত রয়েছে। আর সেজন্য তারা দেশের সকল সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানকে ভেঙে ধ্বংসস্তুপে পরিণত করেছে। এরা গণতন্ত্রমনা নানা শ্রেণী-পেশার মানুষকে অবরুদ্ধ করে রাখতে চায়। মানুষের কণ্ঠকে স্তব্ধ করতে রাষ্ট্রকে নিপীড়ণযন্ত্রে পরিণত করেছে তারা। দেশকে মিথ্যা মামলা, গ্রেফতার আর সহিংস হামলার এক নৈরাজ্যকর পরিস্থিতির মধ্যে ঠেলে দেয়া হয়েছে। ৭ জানুয়ারির ডামি নির্বাচনের পর ক্ষমতা দখল করে এর তীব্রতা আরো বৃদ্ধি করা হয়েছে।

সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল এবং সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক নির্বাহী সদস্য ব্যারিস্টার ওজমান চৌধুরীকে গ্রেফতারের ঘটনা সেটিরই নির্মম বহিঃপ্রকাশ। সরকারের জুলুমের হাত থেকে দেশের ভিন্ন মতের খ্যাতনামা আইনজীবীদের ছাড় দেয়া হচ্ছে না। চারিদিকে ভয় ও আতঙ্কের পরিবেশ বজায় রেখে আওয়ামী ডামি সরকার নিজেদের ক্ষমতা টিকিয়ে রাখার অপচেষ্টা চালাচ্ছে। কিন্তু জনগণের সম্মিলিত শক্তির কাছে তাদের পরাজয় বরণ করতেই হবে।

অবিলম্বে ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল এবং ব্যারিস্টার ওজমান চৌধুরীর নিঃশর্ত মুক্তিসহ তাদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত বানোয়াট মামলা প্রত্যাহারের জোর আহবান জানান মির্জা ফখরুল।