ঢাকা ০২:০১ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মসজিদের পানির পাম্প নিয়ে গেছেন যুবলীগ নেতা

নিউজ ডেস্ক:-
  • আপডেট সময় ০৫:৩৩:২৪ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২০ মার্চ ২০২৪
  • / ৮৭ বার পড়া হয়েছে

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে মসজিদের জন্য সরকারের দেওয়া সাবমার্সিবল পানির পাম্প মসজিদে না বসিয়ে নিজের বাড়িতে বসিয়েছেন এক যুবলীগ নেতা। এমন অভিযোগ করেছেন এলাকাবাসী।

অভিযুক্ত যুবলীগ নেতা সাইফুর রহমান তারেক উপজেলার ভুনবীর ইউনিয়নের পশ্চিমপাড়া গ্রামের মৃত হাবিব উল্লাহর ছেলে। তিনি ২নং ভুনবীর ইউনিয়ন যুবলীগের দপ্তর সম্পাদক।

সরেজমিনে দেখা যায়, তারেকের বাড়িতে পানির পাম্প বসিয়ে পানির লাইন নিয়েছেন বাড়ির ভেতরে। এলাকাবাসী ভাষ্যমতে, এই সরকারি পানির পাম্পটি মসজিদ ও এলাকাবাসীর ব্যবহারের জন্য বসানোর কথা থাকলেও তারেক ক্ষমতা দেখিয়ে তার বাড়িতে বসিয়েছেন। মসজিদের কাজে ব্যবহার বা এলাকাবাসীর পানি পানের কোনো সুযোগ নেই সেখানে।

এ বিষয়ে স্থানীয় বাসিন্দা আবিদ মিয়া, মাহমুদ উল্লাহ, আউয়াল মিয়া, জালাল আহমেদ সেলিম, আব্দাল মিয়াসহ আরও কয়েকজনের সঙ্গে কথা হয়। তারা জানান, আমাদের পশ্চিমপাড়া গ্রামের মসজিদে ২০২৩ সালের ডিসেম্বর মাসে পানির পাম্প বসানো হয়। অথচ মিথ্যা বলে মসজিদের নামে সরকারিভাবে একটি পানির পাম্প এনে তারেক তার নিজ বাড়িতে পানির নতুন পাম্পটি বসিয়েছেন।

পশ্চিম পাড়া মসজিদের সভাপতি দাবি করে এ যুবলীগ নেতা সাইফুর রহমান তারেক বলেন, মসজিদের কাজে ও স্থানীয় মানুষ যেন পানি ব্যবহার করতে পারেন সেজন্য এখানে পানির পাম্প বসানো হয়েছে।

মসজিদ কমিটির বর্তমান সভাপতি মঈনুদ্দিন ও সাধারণ সম্পাদক আমান মিয়া বলেন, তারেক পশ্চিমপাড়া মসজিদের সভাপতি নয়। সে মসজিদের সভাপতি দাবি করে মানুষের কাছে বলে বেড়াচ্ছেন। মসজিদের কথা বলে সে তার বাড়িতে সরকারি পানির পাম্প বসিয়ে নিজের ব্যক্তিগত কাজে ব্যবহার করছেন।

শ্রীমঙ্গল ২নং ভুনবীর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. আব্দুর রশীদ বলেন আমি শুনেছি মসজিদের নামে সরকারিভাবে একটি পানির পাম্প এনে তারেক তার বাড়িতে পানির পাম্পটি স্থাপন করেছে। এ বিষয়ে চেয়ারম্যান হিসেবে আমি ব্যবস্থা নেব।

নিউজটি শেয়ার করুন

মসজিদের পানির পাম্প নিয়ে গেছেন যুবলীগ নেতা

আপডেট সময় ০৫:৩৩:২৪ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২০ মার্চ ২০২৪

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে মসজিদের জন্য সরকারের দেওয়া সাবমার্সিবল পানির পাম্প মসজিদে না বসিয়ে নিজের বাড়িতে বসিয়েছেন এক যুবলীগ নেতা। এমন অভিযোগ করেছেন এলাকাবাসী।

অভিযুক্ত যুবলীগ নেতা সাইফুর রহমান তারেক উপজেলার ভুনবীর ইউনিয়নের পশ্চিমপাড়া গ্রামের মৃত হাবিব উল্লাহর ছেলে। তিনি ২নং ভুনবীর ইউনিয়ন যুবলীগের দপ্তর সম্পাদক।

সরেজমিনে দেখা যায়, তারেকের বাড়িতে পানির পাম্প বসিয়ে পানির লাইন নিয়েছেন বাড়ির ভেতরে। এলাকাবাসী ভাষ্যমতে, এই সরকারি পানির পাম্পটি মসজিদ ও এলাকাবাসীর ব্যবহারের জন্য বসানোর কথা থাকলেও তারেক ক্ষমতা দেখিয়ে তার বাড়িতে বসিয়েছেন। মসজিদের কাজে ব্যবহার বা এলাকাবাসীর পানি পানের কোনো সুযোগ নেই সেখানে।

এ বিষয়ে স্থানীয় বাসিন্দা আবিদ মিয়া, মাহমুদ উল্লাহ, আউয়াল মিয়া, জালাল আহমেদ সেলিম, আব্দাল মিয়াসহ আরও কয়েকজনের সঙ্গে কথা হয়। তারা জানান, আমাদের পশ্চিমপাড়া গ্রামের মসজিদে ২০২৩ সালের ডিসেম্বর মাসে পানির পাম্প বসানো হয়। অথচ মিথ্যা বলে মসজিদের নামে সরকারিভাবে একটি পানির পাম্প এনে তারেক তার নিজ বাড়িতে পানির নতুন পাম্পটি বসিয়েছেন।

পশ্চিম পাড়া মসজিদের সভাপতি দাবি করে এ যুবলীগ নেতা সাইফুর রহমান তারেক বলেন, মসজিদের কাজে ও স্থানীয় মানুষ যেন পানি ব্যবহার করতে পারেন সেজন্য এখানে পানির পাম্প বসানো হয়েছে।

মসজিদ কমিটির বর্তমান সভাপতি মঈনুদ্দিন ও সাধারণ সম্পাদক আমান মিয়া বলেন, তারেক পশ্চিমপাড়া মসজিদের সভাপতি নয়। সে মসজিদের সভাপতি দাবি করে মানুষের কাছে বলে বেড়াচ্ছেন। মসজিদের কথা বলে সে তার বাড়িতে সরকারি পানির পাম্প বসিয়ে নিজের ব্যক্তিগত কাজে ব্যবহার করছেন।

শ্রীমঙ্গল ২নং ভুনবীর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. আব্দুর রশীদ বলেন আমি শুনেছি মসজিদের নামে সরকারিভাবে একটি পানির পাম্প এনে তারেক তার বাড়িতে পানির পাম্পটি স্থাপন করেছে। এ বিষয়ে চেয়ারম্যান হিসেবে আমি ব্যবস্থা নেব।