ঢাকা ০৬:২৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ৯ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে গাজা যুদ্ধবিরতির প্রস্তাব পাস

নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ১১:৪৮:০৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৫ মার্চ ২০২৪
  • / ৯১ বার পড়া হয়েছে

গাজায় ‘অবিলম্বে যুদ্ধবিরতির’ আহ্বান জানিয়ে একটি প্রস্তাব পাস করেছে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র তার আগের অবস্থান পরিবর্তন করেছে। এবার তারা প্রস্তাবে ভেটো দেয়নি।

প্রস্তাবে সব জিম্মিকে অবিলম্বে ও নিঃশর্ত মুক্তির দাবিও উল্লেখ করা হয়েছে।

অক্টোবরে যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকে অচলাবস্থায় ছিল জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ। বারবার যুদ্ধবিরতির আহ্বানে সম্মত হতে ব্যর্থ হয় সংস্থাটি।

গাজায় ইসরায়েলের আক্রমণ নিয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এই পদক্ষেপকে দেশটির মিত্র ইসরায়েলের মধ্যে বাড়তে থাকা মতবিরোধের ইঙ্গিত বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।
গাজায় বেড়ে চলা নিহতের সংখ্যা নিয়ে ওয়াশিংটন ইসরায়েলের সমালোচনা করেছে। ইসরায়েলের হামলায় এপর্যন্ত ৩২ হাজারের বেশি মানুষ নিহত হয়েছে যার বেশিরভাগই নারী ও শিশু।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র গাজায় ত্রাণ বিতরণের জন্য আরও পদক্ষেপ নিতে জন্য ইসরায়েলকে চাপ দিয়েছে। কারণ গাজাবাসী তীব্র খাদ্য নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে।

এদিকে ইসরায়েলকে ত্রাণ সহায়তায় বাধা দেওয়ার অভিযোগ করেছে জাতিসংঘ। কিন্তু ত্রাণ বিতরণে ব্যর্থতার জন্য পাল্টা জাতিসংঘকেই দায়ী করেছে ইসরায়েল।

গাজা শাসনকারী ফিলিস্তিনি গোষ্ঠী হামাস ইসরায়েলের ওপর নজিরবিহীন হামলা চালানোর পর ৭ অক্টোবর থেকে যুদ্ধ শুরু হয়। ৭ অক্টোবরের হামলায় প্রায় ১ হাজার ২০০ ইসরায়েলি নিহত হয় এবং ২৫৩ জনকে জিম্মি করে গাজায় নিয়ে যাওয়া হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে গাজা যুদ্ধবিরতির প্রস্তাব পাস

আপডেট সময় ১১:৪৮:০৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৫ মার্চ ২০২৪

গাজায় ‘অবিলম্বে যুদ্ধবিরতির’ আহ্বান জানিয়ে একটি প্রস্তাব পাস করেছে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র তার আগের অবস্থান পরিবর্তন করেছে। এবার তারা প্রস্তাবে ভেটো দেয়নি।

প্রস্তাবে সব জিম্মিকে অবিলম্বে ও নিঃশর্ত মুক্তির দাবিও উল্লেখ করা হয়েছে।

অক্টোবরে যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকে অচলাবস্থায় ছিল জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ। বারবার যুদ্ধবিরতির আহ্বানে সম্মত হতে ব্যর্থ হয় সংস্থাটি।

গাজায় ইসরায়েলের আক্রমণ নিয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এই পদক্ষেপকে দেশটির মিত্র ইসরায়েলের মধ্যে বাড়তে থাকা মতবিরোধের ইঙ্গিত বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।
গাজায় বেড়ে চলা নিহতের সংখ্যা নিয়ে ওয়াশিংটন ইসরায়েলের সমালোচনা করেছে। ইসরায়েলের হামলায় এপর্যন্ত ৩২ হাজারের বেশি মানুষ নিহত হয়েছে যার বেশিরভাগই নারী ও শিশু।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র গাজায় ত্রাণ বিতরণের জন্য আরও পদক্ষেপ নিতে জন্য ইসরায়েলকে চাপ দিয়েছে। কারণ গাজাবাসী তীব্র খাদ্য নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে।

এদিকে ইসরায়েলকে ত্রাণ সহায়তায় বাধা দেওয়ার অভিযোগ করেছে জাতিসংঘ। কিন্তু ত্রাণ বিতরণে ব্যর্থতার জন্য পাল্টা জাতিসংঘকেই দায়ী করেছে ইসরায়েল।

গাজা শাসনকারী ফিলিস্তিনি গোষ্ঠী হামাস ইসরায়েলের ওপর নজিরবিহীন হামলা চালানোর পর ৭ অক্টোবর থেকে যুদ্ধ শুরু হয়। ৭ অক্টোবরের হামলায় প্রায় ১ হাজার ২০০ ইসরায়েলি নিহত হয় এবং ২৫৩ জনকে জিম্মি করে গাজায় নিয়ে যাওয়া হয়।