ঢাকা ০৭:৪৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ময়মনসিংহে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীসহ সড়ক দুর্ঘটনায় ৩ জনের মৃত্যু

নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০২:৪৯:৩৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৮ মার্চ ২০২৪
  • / ৩০ বার পড়া হয়েছে

ছবি-সংগৃহীত

ময়মনসিংহের ত্রিশালে বাসচাপায় সিএনজি অটোরিকশার যাত্রী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও শিশুসহ তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও চারজন।

বৃহস্পতিবার (২৮ মার্চ) সকাল সাড়ে দশটার দিকে উপজেলার ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের সাইফুল কমিশনারের বাসার সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গীত বিভাগের শিক্ষার্থী সালমান আজাদী, ত্রিশাল উপজেলার বৈলর ইউনিয়নের রুদ্রগ্রামের এনামূল হকের মেয়ে রুবাইরা তাজনিম (২) ও ত্রিশাল ইউনিয়নের চিকনা মনোহর গ্রামের আব্দুস সালামের ছেলে শরিফুল ইসলাম (৩৩)।

জানা গেছে, ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা শেরপুরগামী সোনার ময়না পরিবহনটি ইউটার্ন নেওয়ার সময় ময়মনসিংহ থেকে ত্রিশালগামী যাত্রীবাহী সিএনজিকে চাপা দেয়। ঘটনাস্থলেই এক শিশুর মৃত্যু হয়। ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পর অপর দুই জনের মৃত্যু হয়।

ত্রিশাল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডা. সুমাইয়া আক্তার লিজা জানান, গুরুতর আহত অবস্থায় সাহিদা (৩৫) ও মুন্নি (৪০) ময়মনসিংহ মেডিকেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ত্রিশাল থানার (তদন্ত) ওসি চাঁদ মিয়া জানান, বৃহস্সপতিবার সকাল সাড়ে দশটার দিকে এ ঘটনাটি ঘটে। এতে এক শিশুকে স্থানীয় হাসপাতালে নেওয়ার পর চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন এবং গুরুতর আরও দুইজন ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পর মারা যায়।

নিউজটি শেয়ার করুন

ময়মনসিংহে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীসহ সড়ক দুর্ঘটনায় ৩ জনের মৃত্যু

আপডেট সময় ০২:৪৯:৩৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৮ মার্চ ২০২৪

ময়মনসিংহের ত্রিশালে বাসচাপায় সিএনজি অটোরিকশার যাত্রী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও শিশুসহ তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও চারজন।

বৃহস্পতিবার (২৮ মার্চ) সকাল সাড়ে দশটার দিকে উপজেলার ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের সাইফুল কমিশনারের বাসার সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গীত বিভাগের শিক্ষার্থী সালমান আজাদী, ত্রিশাল উপজেলার বৈলর ইউনিয়নের রুদ্রগ্রামের এনামূল হকের মেয়ে রুবাইরা তাজনিম (২) ও ত্রিশাল ইউনিয়নের চিকনা মনোহর গ্রামের আব্দুস সালামের ছেলে শরিফুল ইসলাম (৩৩)।

জানা গেছে, ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা শেরপুরগামী সোনার ময়না পরিবহনটি ইউটার্ন নেওয়ার সময় ময়মনসিংহ থেকে ত্রিশালগামী যাত্রীবাহী সিএনজিকে চাপা দেয়। ঘটনাস্থলেই এক শিশুর মৃত্যু হয়। ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পর অপর দুই জনের মৃত্যু হয়।

ত্রিশাল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডা. সুমাইয়া আক্তার লিজা জানান, গুরুতর আহত অবস্থায় সাহিদা (৩৫) ও মুন্নি (৪০) ময়মনসিংহ মেডিকেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ত্রিশাল থানার (তদন্ত) ওসি চাঁদ মিয়া জানান, বৃহস্সপতিবার সকাল সাড়ে দশটার দিকে এ ঘটনাটি ঘটে। এতে এক শিশুকে স্থানীয় হাসপাতালে নেওয়ার পর চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন এবং গুরুতর আরও দুইজন ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পর মারা যায়।