ঢাকা ০৮:২৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা হত্যার ঘটনায় আ.লীগ নেত্রী আটক

নিউজ ডেস্ক:-
  • আপডেট সময় ০২:৫৫:৩৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ৩০ মার্চ ২০২৪
  • / ১৪১ বার পড়া হয়েছে

আ.লীগ নেত্রী কাজী জেসমিন আক্তার।

ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার সিদ্ধকাঠি ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি কাজী জিয়াউল ইসলাম ফুয়াদকে (৪০) কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় জড়িত সন্দেহে সিদ্ধকাঠি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও সিদ্ধকাঠি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী জেসমিন আক্তারকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে পুলিশ।

শুক্রবার (২৯ মার্চ) দিনগত রাত ১২টার দিকে সিদ্ধকাঠি ইউনিয়নের নিজ বাড়ি থেকে তাকে আটক করা হয়।

শনিবার (৩০ মার্চ) সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নলছিটি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মুরাদ আলী।

জানা যায়, গত রোববার (৭ জানুয়ারি) রাতে সিদ্ধকাঠি ইউনিয়নের চৌদ্দবুড়িয়া গ্রামের মসজিদ বাড়ি এলাকায় আওয়ামী লীগের বিজয় মিছিল শেষে বাড়ি ফেরার পথে ফুয়াদ কাজীকে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় ৮ জানুয়ারি রাতে ফুয়াদের বড় ভাই ফয়সাল কাজী অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদের আসামি করে মামলা করেন।

ওসি মোহাম্মদ মুরাদ আলী বলেন, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা ফুয়াদ কাজী হত্যার অভিযোগে এর আগে ইউপি সদস্য রফিকুল ইসলাম হাওলাদারসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় হত্যার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে সিদ্ধকাঠি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কাজী জেসমিন আক্তারকেও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে বলা যাবে তাকে গ্রেপ্তার দেখানো হবে কিনা।

নিউজটি শেয়ার করুন

স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা হত্যার ঘটনায় আ.লীগ নেত্রী আটক

আপডেট সময় ০২:৫৫:৩৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ৩০ মার্চ ২০২৪

ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার সিদ্ধকাঠি ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি কাজী জিয়াউল ইসলাম ফুয়াদকে (৪০) কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় জড়িত সন্দেহে সিদ্ধকাঠি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও সিদ্ধকাঠি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী জেসমিন আক্তারকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে পুলিশ।

শুক্রবার (২৯ মার্চ) দিনগত রাত ১২টার দিকে সিদ্ধকাঠি ইউনিয়নের নিজ বাড়ি থেকে তাকে আটক করা হয়।

শনিবার (৩০ মার্চ) সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নলছিটি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মুরাদ আলী।

জানা যায়, গত রোববার (৭ জানুয়ারি) রাতে সিদ্ধকাঠি ইউনিয়নের চৌদ্দবুড়িয়া গ্রামের মসজিদ বাড়ি এলাকায় আওয়ামী লীগের বিজয় মিছিল শেষে বাড়ি ফেরার পথে ফুয়াদ কাজীকে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় ৮ জানুয়ারি রাতে ফুয়াদের বড় ভাই ফয়সাল কাজী অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিদের আসামি করে মামলা করেন।

ওসি মোহাম্মদ মুরাদ আলী বলেন, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা ফুয়াদ কাজী হত্যার অভিযোগে এর আগে ইউপি সদস্য রফিকুল ইসলাম হাওলাদারসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় হত্যার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে সিদ্ধকাঠি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কাজী জেসমিন আক্তারকেও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে বলা যাবে তাকে গ্রেপ্তার দেখানো হবে কিনা।