ঢাকা ০৮:২৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ছাত্রদলের সাবেক সভাপতির উপর ছাত্রলীগের হামলা

নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৩:১৩:২৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪
  • / ৭১ বার পড়া হয়েছে

জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি কাজী রওনাকুল ইসলাম শ্রাবণের উপর ছাত্রলীগ হামলা করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

মঙ্গলবার রাত নয়টার দিকে শিল্পকলার সামনে নেতা-কর্মীদের সাথে আড্ডা দেওয়ার সময় সশস্ত্র ছাত্রলীগের উচ্ছৃঙ্খল নেতাকর্মীরা রড-চাপাতি-রামদা-হকিস্টিক দিয়ে অতর্কিত হামলা করে গুরুতর জখম ও আহত করেছে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের সদ্য সাবেক সভাপতি ও বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য কাজী রওনকুল ইসলাম শ্রাবণকে।

শ্রাবণ জানান, ছাত্রলীগের কর্মীরা প্রকাশ্যে জয়বাংলা শ্লোগান দিয়ে আমার উপর হামলা চালায়।

বর্তমানে ঢাকা মেডিকেল কলেজে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি শ্রাবণ।

এদিকে, ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি শ্রাবণের উপর বর্বরোচিত হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। তিনি বলেন, এ সরকার গোটা দেশকে রক্তাক্ত করছে। রক্ত পিপাসু সরকার গণতন্ত্রকামী সৈনিকের রক্ত দিয়ে উল্লাস করছে। কিন্তু সংগ্রামে রক্ত কখনও বৃথা যায় না। সবকিছুরই একদিন বিচার হবে এই বাংলার মাটিতেই

নিউজটি শেয়ার করুন

ছাত্রদলের সাবেক সভাপতির উপর ছাত্রলীগের হামলা

আপডেট সময় ০৩:১৩:২৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ২২ মে ২০২৪

জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি কাজী রওনাকুল ইসলাম শ্রাবণের উপর ছাত্রলীগ হামলা করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

মঙ্গলবার রাত নয়টার দিকে শিল্পকলার সামনে নেতা-কর্মীদের সাথে আড্ডা দেওয়ার সময় সশস্ত্র ছাত্রলীগের উচ্ছৃঙ্খল নেতাকর্মীরা রড-চাপাতি-রামদা-হকিস্টিক দিয়ে অতর্কিত হামলা করে গুরুতর জখম ও আহত করেছে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের সদ্য সাবেক সভাপতি ও বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য কাজী রওনকুল ইসলাম শ্রাবণকে।

শ্রাবণ জানান, ছাত্রলীগের কর্মীরা প্রকাশ্যে জয়বাংলা শ্লোগান দিয়ে আমার উপর হামলা চালায়।

বর্তমানে ঢাকা মেডিকেল কলেজে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি শ্রাবণ।

এদিকে, ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি শ্রাবণের উপর বর্বরোচিত হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। তিনি বলেন, এ সরকার গোটা দেশকে রক্তাক্ত করছে। রক্ত পিপাসু সরকার গণতন্ত্রকামী সৈনিকের রক্ত দিয়ে উল্লাস করছে। কিন্তু সংগ্রামে রক্ত কখনও বৃথা যায় না। সবকিছুরই একদিন বিচার হবে এই বাংলার মাটিতেই