ঢাকা ০৮:১৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চুরি করতে গিয়ে এসি চালিয়ে ঘুম, অতঃপর

নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ১০:৫৬:২০ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৪ জুন ২০২৪
  • / ৫৫ বার পড়া হয়েছে

ফাঁকা বাড়িতে চুরি করতে এসে এসি চালু করে ঘুমিয়ে পড়েন এক চোর। ইতোমধ্যে ওই চোরকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এই ঘটনা ভারতের।

ঘটনার বিস্তারিত সম্পর্কে জানা যায়, উত্তরপ্রদেশের লখনউয়ের ইন্দিরানগরে তালাবদ্ধ বাড়িতে চুরি করতে গত শনিবার রাতে ঢুকে পড়ে এক চোর। এরপর ওই বাড়িতে থাকা মূল্যবান জিনিস হাতিয়ে নেয় চোর। এরমধ্যে তার নজরে পড়ে এসি। তাই এসি চালু করে একটু বিশ্রাম নেওয়া শুরু করেন।

হিন্দুস্তান টাইমস জানিয়েছে, বাড়িটি ছিল এক চিকিতসকের। ওই চোর বিশ্রামের জন্য শুয়ে পড়লে একদম সকালে জেগে উঠেন। উঠেই দেখেন তার চারপাশে পুলিশের দল।

টাইমস অব ইন্ডিয়ার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গাজীপুর থানার আওতাধীন ইন্দিরা নগরের সেক্টর ২০-এ অবস্থিত সুনীল পান্ডে নামের একজন চিকিতসকের তালাবদ্ধ বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে।

সুনীল পান্ডে বলরামপুর হাসপাতালে কাজ করেন এবং বাড়ি ছেড়ে বারাণসীতে যান। এই সুযোগেই অভিযুক্ত ব্যক্তি ওই বাড়িতে ঢুকে মূল্যবান জিনিস হাতিয়ে নেয়। তবে অনেক মাতাল থাকায় সেখানেই ঘুমিয়ে পড়েন। সকালে পান্ডের প্রতিবেশীরা তার ঘরের দরজা খোলা অবস্থায় দেখতে পান। আর উঁকি দিয়ে দেখতে পান, বাড়ির ভেতরে লুটপাট করা হয়েছে এবং জিনিস এদিক সেদিক।

এমন পরিস্থিতিতে প্রতিবেশীরা পুলিশে খবর দেয়। এরপরেই পুলিশ এসে দেখতে পান, অভিযুক্ত কপিল চুরি করা মূল্যবান জিনিস নিয়ে ঘুমিয়ে আছে।

পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, কপিল ওই বাড়িতে ঢুকে নগদ টাকাসহ মূল্যবান জিনিস হাতিয়ে নেয়। সে এমনি ওয়াশবেসিন, গ্যাস সিলিন্ডার এবং ওয়াটার পাম্প চুরির চেষ্টা চালায়। তবে সে ঘুমিয়ে পড়ে।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

চুরি করতে গিয়ে এসি চালিয়ে ঘুম, অতঃপর

আপডেট সময় ১০:৫৬:২০ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৪ জুন ২০২৪

ফাঁকা বাড়িতে চুরি করতে এসে এসি চালু করে ঘুমিয়ে পড়েন এক চোর। ইতোমধ্যে ওই চোরকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এই ঘটনা ভারতের।

ঘটনার বিস্তারিত সম্পর্কে জানা যায়, উত্তরপ্রদেশের লখনউয়ের ইন্দিরানগরে তালাবদ্ধ বাড়িতে চুরি করতে গত শনিবার রাতে ঢুকে পড়ে এক চোর। এরপর ওই বাড়িতে থাকা মূল্যবান জিনিস হাতিয়ে নেয় চোর। এরমধ্যে তার নজরে পড়ে এসি। তাই এসি চালু করে একটু বিশ্রাম নেওয়া শুরু করেন।

হিন্দুস্তান টাইমস জানিয়েছে, বাড়িটি ছিল এক চিকিতসকের। ওই চোর বিশ্রামের জন্য শুয়ে পড়লে একদম সকালে জেগে উঠেন। উঠেই দেখেন তার চারপাশে পুলিশের দল।

টাইমস অব ইন্ডিয়ার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গাজীপুর থানার আওতাধীন ইন্দিরা নগরের সেক্টর ২০-এ অবস্থিত সুনীল পান্ডে নামের একজন চিকিতসকের তালাবদ্ধ বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে।

সুনীল পান্ডে বলরামপুর হাসপাতালে কাজ করেন এবং বাড়ি ছেড়ে বারাণসীতে যান। এই সুযোগেই অভিযুক্ত ব্যক্তি ওই বাড়িতে ঢুকে মূল্যবান জিনিস হাতিয়ে নেয়। তবে অনেক মাতাল থাকায় সেখানেই ঘুমিয়ে পড়েন। সকালে পান্ডের প্রতিবেশীরা তার ঘরের দরজা খোলা অবস্থায় দেখতে পান। আর উঁকি দিয়ে দেখতে পান, বাড়ির ভেতরে লুটপাট করা হয়েছে এবং জিনিস এদিক সেদিক।

এমন পরিস্থিতিতে প্রতিবেশীরা পুলিশে খবর দেয়। এরপরেই পুলিশ এসে দেখতে পান, অভিযুক্ত কপিল চুরি করা মূল্যবান জিনিস নিয়ে ঘুমিয়ে আছে।

পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, কপিল ওই বাড়িতে ঢুকে নগদ টাকাসহ মূল্যবান জিনিস হাতিয়ে নেয়। সে এমনি ওয়াশবেসিন, গ্যাস সিলিন্ডার এবং ওয়াটার পাম্প চুরির চেষ্টা চালায়। তবে সে ঘুমিয়ে পড়ে।