ঢাকা ০৩:৩৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শাহবাগ থেকে ফার্মগেট কোটা আন্দোলনকারীদের দখলে, যান চলাচল বন্ধ

নিউজ ডেস্ক:-
  • আপডেট সময় ০৬:২৬:১৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ৮ জুলাই ২০২৪
  • / ১৫ বার পড়া হয়েছে

সরকারি চাকরিতে কোটা ব্যবস্থা বাতিল ও ২০১৮ সালে সরকারের জারি করা পরিপত্র পুনর্বহালের দাবিতে রাজধানীর শাহবাগ থেকে ফার্মগেট সড়কে অবস্থান নিয়েছেন আন্দোলনকারীরা। সোমবার বিকালে পূর্বঘোষিত ‘বাংলা ব্লকেড’ কর্মসূচির অংশ হিসেবে এ সড়ক অবরোধ করেন তারা। এতে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। দুর্ভোগে পড়েছেন যাত্রীরা।
কোটা বাতিলের এক দফা দাবিতে আন্দোলন করছেন শিক্ষার্থীরা। অবরোধ ঘিরে সতর্ক অবস্থানে রয়েছে পুলিশ। এ সময় আন্দোলনকারীরা বিভিন্ন স্লোগান দিতে থাকেন।

এর আগে সোমবার বিকাল ৪ টা ১৫ মিনিটে পূর্বঘোষিত ‘বাংলা ব্লকেড কর্মসূচির অংশ হিসেবে শাহবাগ মোড়ে জড়ো হতে থাকেন আন্দোলনকারীরা। সেখানে থেকে ফার্মগেটের দিকে মিছিল নিয়ে যান তারা।
বিকাল ৪ টার আগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুরক্যান্টিনে কোটা বিরোধী আন্দোলনকারীরা অবস্থান নিয়ে স্লোগান দিতে থাকেন। পাল্টাপাল্টি অবস্থান নেয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ। তবে অপ্রীতিকর কোনো পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়নি। সেখান থেকে ঢাবি শিক্ষার্থীদের বড় অংশ শাহবাগের আন্দোলনে যোগ দেয়।
অন্যদিকে দ্বিতীয় দিনের মতো রাজধানীর সায়েন্সল্যাব মোড় অবরোধ করেছেন শিক্ষার্থীরা।

বিকেল ৩টা ৫৫ মিনিটের দিকে ঢাকা কলেজের মূল ফটকের সামনে সাত কলেজের শিক্ষার্থীরা উপস্থিত হন। এরপর একটি মিছিল নিয়ে সায়েন্সল্যাব মোড়ে এসে অবরোধ করেন তারা।
এর আগে গতকাল রোববার রাজধানীতে ‘বাংলা ব্লকেড’ কর্মসূচি পালন করেন আন্দোলনকারীরা। এতে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায় রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে। কার্যত স্থবির হয়ে পড়ে যোগাযোগ। সেখান থেকে সোমবারের কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়।
উল্লেখ্য, সরকারি চাকরিতে কোটা ব্যবস্থা বাতিল করে ২০১৮ সালে সরকারের জারি করা পরিপত্র পুনর্বহালসহ চার দফা দাবিতে কয়েক দিন ধরে বিক্ষোভ মিছিল ও সড়ক অবরোধ করছেন আন্দোলনকারী শিক্ষার্থী ও চাকরিপ্রত্যাশীরা। রোববার তারা এক দফা দাবিতে পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণা করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

শাহবাগ থেকে ফার্মগেট কোটা আন্দোলনকারীদের দখলে, যান চলাচল বন্ধ

আপডেট সময় ০৬:২৬:১৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ৮ জুলাই ২০২৪

সরকারি চাকরিতে কোটা ব্যবস্থা বাতিল ও ২০১৮ সালে সরকারের জারি করা পরিপত্র পুনর্বহালের দাবিতে রাজধানীর শাহবাগ থেকে ফার্মগেট সড়কে অবস্থান নিয়েছেন আন্দোলনকারীরা। সোমবার বিকালে পূর্বঘোষিত ‘বাংলা ব্লকেড’ কর্মসূচির অংশ হিসেবে এ সড়ক অবরোধ করেন তারা। এতে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। দুর্ভোগে পড়েছেন যাত্রীরা।
কোটা বাতিলের এক দফা দাবিতে আন্দোলন করছেন শিক্ষার্থীরা। অবরোধ ঘিরে সতর্ক অবস্থানে রয়েছে পুলিশ। এ সময় আন্দোলনকারীরা বিভিন্ন স্লোগান দিতে থাকেন।

এর আগে সোমবার বিকাল ৪ টা ১৫ মিনিটে পূর্বঘোষিত ‘বাংলা ব্লকেড কর্মসূচির অংশ হিসেবে শাহবাগ মোড়ে জড়ো হতে থাকেন আন্দোলনকারীরা। সেখানে থেকে ফার্মগেটের দিকে মিছিল নিয়ে যান তারা।
বিকাল ৪ টার আগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুরক্যান্টিনে কোটা বিরোধী আন্দোলনকারীরা অবস্থান নিয়ে স্লোগান দিতে থাকেন। পাল্টাপাল্টি অবস্থান নেয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ। তবে অপ্রীতিকর কোনো পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়নি। সেখান থেকে ঢাবি শিক্ষার্থীদের বড় অংশ শাহবাগের আন্দোলনে যোগ দেয়।
অন্যদিকে দ্বিতীয় দিনের মতো রাজধানীর সায়েন্সল্যাব মোড় অবরোধ করেছেন শিক্ষার্থীরা।

বিকেল ৩টা ৫৫ মিনিটের দিকে ঢাকা কলেজের মূল ফটকের সামনে সাত কলেজের শিক্ষার্থীরা উপস্থিত হন। এরপর একটি মিছিল নিয়ে সায়েন্সল্যাব মোড়ে এসে অবরোধ করেন তারা।
এর আগে গতকাল রোববার রাজধানীতে ‘বাংলা ব্লকেড’ কর্মসূচি পালন করেন আন্দোলনকারীরা। এতে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায় রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে। কার্যত স্থবির হয়ে পড়ে যোগাযোগ। সেখান থেকে সোমবারের কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়।
উল্লেখ্য, সরকারি চাকরিতে কোটা ব্যবস্থা বাতিল করে ২০১৮ সালে সরকারের জারি করা পরিপত্র পুনর্বহালসহ চার দফা দাবিতে কয়েক দিন ধরে বিক্ষোভ মিছিল ও সড়ক অবরোধ করছেন আন্দোলনকারী শিক্ষার্থী ও চাকরিপ্রত্যাশীরা। রোববার তারা এক দফা দাবিতে পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণা করেন।