ঢাকা ০২:৪৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ২৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে কার্যত অবরুদ্ধ রাজধানীর একাংশ

নিউজ ডেস্ক:-
  • আপডেট সময় ০৬:১৪:২৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১১ জুলাই ২০২৪
  • / ১৮ বার পড়া হয়েছে

কোটা সংস্কারের দাবিতে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে ব্যাপক উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে। সংঘর্ষে হয়েছে কুমিল্লা ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায়। কুবিতে টিয়ারশেল ও গুলি ছুড়েছে পুলিশ। রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় পুলিশের বাধা উপেক্ষা করে সড়কে দখলে নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) বিকেল সাড়ে ৪টার পর রাজধানীর আগারগাঁও মোড়ের মূল সড়কে অবস্থান নিয়ে ‘বাংলা ব্লকেড’ কর্মসূচি পালন করছেন আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা। এর ফলে সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

এদিকে একই দাবিতে পুলিশের দেওয়া ব্যারিকেড ভেঙে রাজধানী শাহবাগ থেকে ইন্টারকন্টিনেন্টাল পর্যন্ত অবস্থান নিয়েছেন শিক্ষার্থীরা।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা দফায় দফায় পুলিশি ব্যারিকেড ভেঙে শাহাবাগে একত্রিত হয়েছেন।

এর আগে বুধবার (১০ জুলাই) শিক্ষার্থীদের অবরোধে সারাদেশে কার্যত অচল হয়ে পড়ে সড়ক, মহাসড়ক ও রেলপথ। সকাল ১০ টা থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ব্লকেড চলে। এ সময় সারাদেশ থেকে অনেকটা বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে ঢাকা।

২০১৮ সালে কোটা সংস্কার আন্দোলনের দাবিতে ৯ম থেকে ১৩তম গ্রেডের সব কোটা বাতিল করে সরকার। এবার সব গ্রেডে কোটা সংস্কারের দাবি করছেন আন্দোলনকারীরা।

নিউজটি শেয়ার করুন

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে কার্যত অবরুদ্ধ রাজধানীর একাংশ

আপডেট সময় ০৬:১৪:২৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১১ জুলাই ২০২৪

কোটা সংস্কারের দাবিতে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে ব্যাপক উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে। সংঘর্ষে হয়েছে কুমিল্লা ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায়। কুবিতে টিয়ারশেল ও গুলি ছুড়েছে পুলিশ। রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় পুলিশের বাধা উপেক্ষা করে সড়কে দখলে নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) বিকেল সাড়ে ৪টার পর রাজধানীর আগারগাঁও মোড়ের মূল সড়কে অবস্থান নিয়ে ‘বাংলা ব্লকেড’ কর্মসূচি পালন করছেন আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা। এর ফলে সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

এদিকে একই দাবিতে পুলিশের দেওয়া ব্যারিকেড ভেঙে রাজধানী শাহবাগ থেকে ইন্টারকন্টিনেন্টাল পর্যন্ত অবস্থান নিয়েছেন শিক্ষার্থীরা।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা দফায় দফায় পুলিশি ব্যারিকেড ভেঙে শাহাবাগে একত্রিত হয়েছেন।

এর আগে বুধবার (১০ জুলাই) শিক্ষার্থীদের অবরোধে সারাদেশে কার্যত অচল হয়ে পড়ে সড়ক, মহাসড়ক ও রেলপথ। সকাল ১০ টা থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ব্লকেড চলে। এ সময় সারাদেশ থেকে অনেকটা বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে ঢাকা।

২০১৮ সালে কোটা সংস্কার আন্দোলনের দাবিতে ৯ম থেকে ১৩তম গ্রেডের সব কোটা বাতিল করে সরকার। এবার সব গ্রেডে কোটা সংস্কারের দাবি করছেন আন্দোলনকারীরা।