ঢাকা ০৮:৩৩ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
এক মাসের কারাদণ্ড এবং এক লাখ টাকা জরিমানা করেছেন আপিল বিভাগ

আদালত অবমাননা : দিনাজপুরের পৌর মেয়রের জেল-জরিমানা

দিনাজপুর প্রতিনিধি:-
  • আপডেট সময় ০৩:৪৪:২২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১২ অক্টোবর ২০২৩
  • / ১৩৮ বার পড়া হয়েছে

ছবি- ইন্টারনেট

আদালত অবমাননার দায়ে দিনাজপুর পৌরসভার মেয়র সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলমকে এক মাসের কারাদণ্ড এবং এক লাখ টাকা জরিমানা করেছেন আপিল বিভাগ।

বৃহস্পতিবার প্রধান বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের নেতৃত্বাধীন চার সদস্যের আপিল বিভাগ এই রায় দেন।

মেয়র যে ক্ষমা চেয়েছেন তা গ্রহণযোগ্য হয়নি আদালতে।

রায়ে মেয়র জাহাঙ্গীর আলমকে আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে দিনাজপুরের আদালতে আত্মসমর্পণ করতে বলা হয়েছে। অন্যথায় তাকে গ্রেফতারের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

এদিন আদালতে দিনাজপুর পৌর মেয়রের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল। আবেদনকারীদের পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট শাহ মঞ্জুরুল হক। আর রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন।

গত ২৪ আগস্ট বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে করা মামলার রায়কে কেন্দ্র করে আপিল বিভাগের জ্যেষ্ঠ বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিমকে নিয়ে একটি ইউটিউব চ্যানেলে জাহাঙ্গীর আলম অবমাননাকর মন্তব্য করেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে চার আইনজীবী আদালত অবমাননার অভিযোগ আনার আবেদন করলে গত ১৭ আগস্ট আদালত অবমাননার নোটিশ দিয়ে তাকে তলব করা হয়।

আপিল বিভাগ আদালত অবমাননার জন্য জাহাঙ্গীরকে কেন শাস্তি দেয়া হবে না, সে বিষয়ে কারণ দর্শাতেও বলা হয়। একইসাথে ভিডিওটি অপসারণ করতে বিটিআরসির চেয়ারম্যানকে নির্দেশ দেন আপিল বিভাগ।

নিউজটি শেয়ার করুন

এক মাসের কারাদণ্ড এবং এক লাখ টাকা জরিমানা করেছেন আপিল বিভাগ

আদালত অবমাননা : দিনাজপুরের পৌর মেয়রের জেল-জরিমানা

আপডেট সময় ০৩:৪৪:২২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১২ অক্টোবর ২০২৩

আদালত অবমাননার দায়ে দিনাজপুর পৌরসভার মেয়র সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলমকে এক মাসের কারাদণ্ড এবং এক লাখ টাকা জরিমানা করেছেন আপিল বিভাগ।

বৃহস্পতিবার প্রধান বিচারপতি ওবায়দুল হাসানের নেতৃত্বাধীন চার সদস্যের আপিল বিভাগ এই রায় দেন।

মেয়র যে ক্ষমা চেয়েছেন তা গ্রহণযোগ্য হয়নি আদালতে।

রায়ে মেয়র জাহাঙ্গীর আলমকে আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে দিনাজপুরের আদালতে আত্মসমর্পণ করতে বলা হয়েছে। অন্যথায় তাকে গ্রেফতারের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

এদিন আদালতে দিনাজপুর পৌর মেয়রের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল। আবেদনকারীদের পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট শাহ মঞ্জুরুল হক। আর রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন।

গত ২৪ আগস্ট বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে করা মামলার রায়কে কেন্দ্র করে আপিল বিভাগের জ্যেষ্ঠ বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিমকে নিয়ে একটি ইউটিউব চ্যানেলে জাহাঙ্গীর আলম অবমাননাকর মন্তব্য করেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে চার আইনজীবী আদালত অবমাননার অভিযোগ আনার আবেদন করলে গত ১৭ আগস্ট আদালত অবমাননার নোটিশ দিয়ে তাকে তলব করা হয়।

আপিল বিভাগ আদালত অবমাননার জন্য জাহাঙ্গীরকে কেন শাস্তি দেয়া হবে না, সে বিষয়ে কারণ দর্শাতেও বলা হয়। একইসাথে ভিডিওটি অপসারণ করতে বিটিআরসির চেয়ারম্যানকে নির্দেশ দেন আপিল বিভাগ।